All Event

21 Feb 2024 - 21 Feb 2024

রাবিপ্রবিতে “মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০২৪” পালিত
রাবিপ্রবিতে “মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০২৪” পালিত
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে ভাষা শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাস ও আবাসিক হলসমূহে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়। সকাল ১০:০০ ঘটিকায় মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার এর নের্তৃত্বে শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীগণ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন-১ হতে বঙ্গবন্ধু ম্যুরাল পর্যন্ত এক শোক র‍্যালীতে অংশগ্রহণ করেন। এরপর ক্যাম্পাসে অবস্থিত অস্থায়ী শহীদ মিনারের বেদিতে ভাষা শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধাস্বরূপ পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার ও প্রো ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা। এছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন শীর্ষক প্রকল্প পরিচালক প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার, রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ, ম্যানেজমেন্ট বিভাগ, ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স বিভাগ, ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগ, ফিশারিজ এন্ড মেরিন রিসোর্সেস টেকনোলজি বিভাগ, প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত), হিসাব বিভাগ, প্রভোস্ট (ছাত্রী হল), সহকারী প্রভোস্ট (ছাত্র হল), পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ভারপ্রাপ্ত), পরিকল্পনা, উন্নয়ন ও ওয়ার্কস শাখা, যানবাহন শাখা, রাবিপ্রবি শিক্ষক সমিতি, রাবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশন এবং রাবিপ্রবি কর্মচারী কল্যাণ সমিতিসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সংগঠন পুস্পস্তবক অর্পণ করেন। ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের পর মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার ও প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন। এরপর “একুশের চেতনায় বর্ণ, বর্ণে বর্ণে সম্প্রীতি” স্লোগানে শিক্ষার্থীদের উদ্যেগে আয়োজিত বই মেলা মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার উদ্বোধন করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার ভবনের সম্মেলন কক্ষে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের চেতনা, গুরুত্ব ও তাৎপর্য তুলে ধরে এক আলোচনা অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ এবং অনুষ্ঠানটি সহকারী রেজিস্ট্রার (একাডেমিক) ও রাবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশন এর সভাপতি জনাব মাহবুব আরা অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন। আলোচনার সভার শুরুতে ভাষার শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। আলোচনা সভায় বক্তব্য প্রদান করেন প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) ও ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স বিভাগের চেয়ারম্যান ড. নিখিল চাকমা, পরিচালক (হিসাব) জনাব মোঃ মনিরূজ্জামান, রাবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির কোষাধ্যক্ষ ও সিএসই বিভাগের চেয়ারম্যান জনাব আহমেদ ইমতিয়াজ, ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান ও ছাত্রী হলের প্রভোস্ট জনাব মোহনা বিশ্বাস, রাবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশন এর সাধারণ সম্পাদক মহিম আল মহিউদ্দিন এবং রাবিপ্রবি কর্মচারী কল্যাণ সমিতির সভাপতি জনাব মোঃ কামাল হোসেন। আলোচনা সভায় মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর ভাষা আন্দোলনের পটভুমি, স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ইতিহাস এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদান সম্পর্কে আলোচনা করেন। তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীন বাংলাদেশের শিক্ষাক্ষেত্রসহ সর্বস্থরে বাংলাভাষার চালুকরণ এই নীতিতে বিশ্বাসী ছিলেন এবং বাংলা ভাষায় বিজ্ঞান চর্চা করার জন্য বলেছেন। বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ এখন পুরো পৃথিবীতে উন্নয়নের বিস্ময়। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে সুজলা সুফলা, শস্য,শ্যামলা থেকে শুরু করে প্রযুক্তিক্ষেত্রে উন্নত করার জন্য প্রাণান্ত চেষ্টা করে যাচ্ছেন। এছাড়াও তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের স্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়নে ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশ থেকে উন্নত দেশে পরিনত হবে। আলোচনা সভা শেষে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০২৪ উপলক্ষে আয়োজিত রচনা প্রতিযোগিতার বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর।
জনসংযোগ দপ্তর
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
তারিখঃ ২১/০২/২০২৪ খ্রিঃ

 

news

14 Feb 2024 - 14 Feb 2024

রাবিপ্রবিতে শ্রীশ্রী সরস্বতী পূজা অনুষ্ঠিত
রাবিপ্রবিতে শ্রীশ্রী সরস্বতী পূজা অনুষ্ঠিত
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে আজ ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রি. রোজ বুধবার সার্বজনীন শ্রীশ্রী সরস্বতী পূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ সকাল ৭:৩০ ঘটিকা থেকে পূজা শুরু হয়ে সকাল ৯:৩০ মিনিটে পুষ্পাঞ্জলি এবং দুপুর ১:৩০ ঘটিকায় প্রসাদ বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত ) ও ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স বিভাগের চেয়ারম্যান ড. নিখিল চাকমা, ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান ও ছাত্রী হলের প্রভোস্ট সহকারী অধ্যাপক জনাব মোহনা বিশ্বাস। এছাড়া ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জনাব খোকনেশ্বর ত্রিপুরা এবং ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও ছাত্র হলের সহকারী প্রভোস্ট জনাব সৌরভ দত্ত প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজা উদযাপন কার্যকরী কমিটির আহবায়ক ও সিএসই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জনাব ধ্বনিতা ত্রিপুরা। স্বাগত বক্তব্য রাখেন পূজা উদযাপন কার্যকরী কমিটির সভাপতি জনাব বিশ্বজিৎ শীল সাগর। বিকাল ৪:০০ টা থেকে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শুরু হয়ে সন্ধ্যা ৬:৩০ ঘটিকায় সন্ধ্যা আরতি সম্পন্ন করার মাধ্যদিয়ে সারা দিনব্যাপী পূজার কার্যক্রম শেষ হবে। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক,কর্মকর্তা,কর্মচারী এবং শিক্ষার্থীবৃন্দ ও এলাকার স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
জনসংযোগ দপ্তর
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
তারিখঃ ১৪/০২/২০২৪ খ্রিঃ

 

news

04 Feb 2024 - 04 Feb 2025

রাবিপ্রবি'র অর্থ কমিটির ৪র্থ সভা অনুষ্ঠিত
রাবিপ্রবি'র অর্থ কমিটির ৪র্থ সভা অনুষ্ঠিত
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে আজ ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ খ্রি: তারিখ সকাল ১০ঃ৩০ ঘটিকায় বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্ণারের সভা কক্ষে রাবিপ্রবির'র অর্থ কমিটির ৪র্থ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় প্রো- ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা, শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগের যুগ্ন সচিব (বাজেট অধিশাখা) ও রাবিপ্রবি অর্থ কমিটির সদস্য জনাব মোঃ নূর- ই- আলম, রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ, অর্থ ও হিসাব দপ্তরের পরিচালক ও রাবিপ্রবির অর্থ কমিটির সদস্য সচিব মোঃ নুরুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা, হিসাব দপ্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন। সভায় ২০২৩-২০২৪ অর্থবছরের সংশোধিত বাজেট ২৬ কোটি ৪০ লাখ ৭৮ হাজার টাকা এবং ২০২৪-২০২৫ অর্থ বছরের মূল বাজেট ৩২ কোটি ৩৩ লাখ ৬৩ হাজার টাকা অনুমোদিত হয়।
জনসংযোগ দপ্তর
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
তারিখঃ ০৪/০২/২০২৪ খ্রিঃ

 

02 Feb 2024 - 02 Feb 2024

রাবিপ্রবিতে শুদ্ধাচার সংক্রান্ত প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত
রাবিপ্রবিতে শুদ্ধাচার সংক্রান্ত প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত
বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি অনুযায়ী শুদ্ধাচার সংক্রান্ত প্রশিক্ষণ আজ দুপুর ২:৩০ ঘটিকায় রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার ভবনের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাবিপ্রবি মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া ভার্চুয়াল মাধ্যমে কর্মশালায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সচিব ড. ফেরদৌস জামান। উপস্থিত ছিলেন রাবিপ্রবি’র রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ । প্রশিক্ষণে প্রশিক্ষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন করেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের স্ট্র্যাটেজিক প্ল্যানিং, কোয়ালিটি অ্যাসিউরেন্স বিভাগ ও তথ্য অধিকার বিষয়ক কমিটির ফোকাল পয়েন্ট জনাব বিষ্ণু মল্লিক, বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের জনসংযোগ ও তথ্য অধিকার বিভাগ ও তথ্য অধিকার বিষয়ক ফোকাল পয়েন্ট জনাব মোহাম্মদ আব্দুল মান্নান এবং প্রশিক্ষণে সঞ্চালনা করেন রাবিপ্রবি'র সহকারী রেজিস্ট্রার (এস্টেট) ও এপিএ ফোকাল পয়েন্ট জনাব সেতু চাকমা । প্রশিক্ষণে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক, কর্মকর্তা এবং কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।
কর্মশালায় সঞ্চালনা করেন রাবিপ্রবি'র রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ।
জনসংযোগ দপ্তর
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
তারিখঃ ২/২/২০২৪ খ্রিঃ

 

02 Feb 2024 - 02 Feb 2024

রাবিপ্রবিতে অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত কর্মশালা অনুষ্ঠিত
রাবিপ্রবিতে অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত কর্মশালা অনুষ্ঠিত
বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি অনুযায়ী অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত কর্মশালা আজ সকাল ১০:০০ ঘটিকায় রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার ভবনের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাবিপ্রবি মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া ভার্চুয়াল মাধ্যমে কর্মশালায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সচিব ড. ফেরদৌস জামান। কর্মশালায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ম্যানেজমেন্ট বিভাগের উপ পরিচালক ও অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থাপনা কমিটির ফোকাল পয়েন্ট জনাব মৌলি আজাদ। এছাড়া কর্মশালায় আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সহকারী সচিব (লিগ্যাল) ও অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থাপনা কমিটির বিকল্প ফোকাল পয়েন্ট জনাব মোহাম্মদ শোয়াইব।
কর্মশালায় সঞ্চালনা করেন রাবিপ্রবি'র রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ।
কর্মশালায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন শিক্ষক,কর্মকর্তা এবং কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।
জনসংযোগ দপ্তর
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
তারিখঃ ২/২/২০২৪ খ্রিঃ

 

news

25 Jan 2024 - 25 Jan 2024

রাবিপ্রবি’র অসুস্থ শিক্ষার্থীর পাশে রাঙ্গামাটি জেলা পুলিশ ও বিকাশ লিমিটেড
রাবিপ্রবি’র অসুস্থ শিক্ষার্থীর পাশে রাঙ্গামাটি জেলা পুলিশ ও বিকাশ লিমিটেড
হাঁড়জনিত (এংকাইলোজিং স্পন্ডিলাইটিস) বিরল রোগে আক্রান্ত রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ৬ষ্ঠ ব্যাচের শিক্ষার্থী রুপক খীসার পাশে দাঁড়িয়েছেন রাঙ্গামাটি জেলা পুলিশ ও মোবাইল ব্যাংকিং সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান বিকাশ লিমিটেড । আজ ২৫ জানুয়ারী ২০২৪ খ্রিঃ রোজ বৃহস্পতিবার রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্ণারের সভাকক্ষে অসুস্থ শিক্ষার্থী পরিবারের কাছে নগদ ২ লক্ষ টাকা প্রদান করেন রাঙ্গামাটি জেলা পুলিশ ও মোবাইল ব্যাংকিং সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান বিকাশ লিমিটেড।
এসময় রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ, রাঙ্গামাটি জেলা পুলিশ সুপার মীর আবু তৌহিদ বিপিএম (বার), বিকাশ লিমিটেড এর এক্সটার্নাল এফেয়ার্স এর ইভিপি ও বিভাগীয় প্রধান মেজর এ.কে.এম. মনিরুল করিম (অবঃ), এসিস্ট্যান্স ম্যানেজার জনাব মোঃ কামরুল ইসলাম, রাবিপ্রবি'র প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) ও ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স বিভাগের চেয়ারম্যন ড. নিখিল চাকমা, সিএসই বিভাগের চেয়ারম্যান ও সহকারী অধ্যাপক জনাব আহমেদ ইমতিয়াজ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) জনাব শাহনেওয়াজ রাজু বিপিএম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) জনাব জাহেদুল ইসলাম, হিসাব দপ্তরের পরিচালক জনাব মো: নূরুজ্জামান, রাঙ্গামাটি জেলা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জনাব নুরে আলম এবং অসুস্থ শিক্ষার্থীর মামা এডভোকেট রাজীব চাকমাসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধানগণ, শিক্ষক, কর্মকর্তা এবং সিএসই বিভাগের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।
জনসংযোগ দপ্তর
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
তারিখঃ ২৫/১/২০২৪ খ্রিঃ

 

news

10 Jan 2024 - 10 Jan 2024

যথাযোগ্য মর্যাদায় রাবিপ্রবিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস-২০২৪ পালিত

যথাযোগ্য মর্যাদায় রাবিপ্রবিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস-২০২৪ পালিত

আজ বুধবার ১০ জানুয়ারি যথাযোগ্য মর্যাদায় রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস-২০২৪ পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় এর পক্ষ থেকে এক আনন্দ শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

সকাল ১০:৩০ ঘটিকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন-১ থেকে এক বর্নাঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে শেষ করে। আলোচনা সভার আগে রাবিপ্রবির মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, অফিসার্স এসোসিয়েশন এবং কর্মচারী কল্যাণ সমিতির পক্ষ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক করেন।

এরপর দিবসটি উপলক্ষে এক আলোচনা সভা আয়োজন করা হয়। এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাবিপ্রবি'র মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা এবং হিসাব দপ্তরের পরিচালক মো: নূরুজ্জামান।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রাবিপ্রবি'র প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) ও ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স বিভাগের চেয়ারম্যন ড. নিখিল চাকমা এবং অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন রাবিপ্রবি'র জনসংযোগ দপ্তরের উপ-পরিচালক জনাব মো: সাইফুল আলম।

সভায় বক্তব্য রাখেন ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. সুপ্রিয় চাকমা, ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান,ছাত্রী হলের প্রভোস্ট এবং শিক্ষক সমিতির সহ-সভাপতি জনাব মোহনা বিশ্বাস, অফিসার্স এসোসিয়েশন এর সভাপতি ও সহকারী রেজিস্ট্রার (একাডেমিক) জনাব মাহবুব আরা এবং রাবিপ্রবি কর্মচারী কল্যাণ সমিতির সভাপতি ও সিনিয়র মেডিকেল টেকনোলজিস্ট জনাব মো: কামাল হোসেন ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর বলেন, জাতির পিতার কথা কখনো বলে শেষ করা যাবেনা। বাঙালী এই বিশ্বে যতদিন বেঁচে থাকবে ততদিন তাঁকে স্মরণ করবেন। বাঙালির অবিসংবাদিত নেতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করতে চাই এই স্বাধীনতার জন্য তিনি তিনি নিজের জীবনকে বিলিয়ে দিয়েছেন। তারপরেও তিনি মাথা নত করেননি।জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসমাপ্ত কাজ এই সোনার বাংলাদেশ গড়ার জন্য তাঁর সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।”

তিনি আরও বলেন, দেশের এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে। আগামী ২০৪১ সালের ভিশন স্মার্ট বাংলাদেশ হয়ে প্রযুক্তিতে বিশ্বে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারি এজন্য সবার কাছে এ আহবান জানান।

প্রো-ভিসি বলেন, জাতির পিতা মুক্তিযুদ্ধের প্রত্যয় নিয়ে অসাম্প্রদায়িক দেশ গড়ার স্বপ্ন দেখেন। কিন্তু ঘাটকদের নির্মমভাবে হত্যায় তার এ স্বপ্ন থেমে যায়। কিন্তু বর্তমানে তার উত্তরসূরী কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কঠোর পরিশ্রমে দেশ এখন অনেক উন্নত হয়েছে এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্নে এগিয়ে যাচ্ছে।

আলোচনা সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। 

 

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

তারিখঃ ১০/১/২০২৪ খ্রিঃ

 

16 Dec 2023 - 16 Dec 2023

রাবিপ্রবি’তে মহান বিজয় দিবস পালিত

আজ ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস -২০২৩ উপলক্ষ্যে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় নানা কর্মসূচীর মধ্যে পালিত হয়। সকাল ১০:০০ ঘটিকায় বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অস্থায়ীভাবে নির্মিত স্মৃতিসৌধ এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে শহীদদের অমর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পস্তবক অর্পনের মধ্য দিয়ে বিজয় দিবসের কর্মসূচী শুরু হয়।

পরবর্তীতে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে কেন্দ্রীয় খেলার মেয়েদের বল নিক্ষেপ খেলা, নতুন মাঠ উদ্বোধন এবং মহান বিজয় দিবস-২০২৩ উপলক্ষে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং শিক্ষার্থীদের মধ্যে আয়োজিত প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচের পুরস্কার বিতরণ করেন রাবিপ্রবি’র মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার।

 

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনার মধ্যে দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবনে আলোচনা সভা শুরু হয়। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা। আলোচনা সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) ড.নিখিল চাকমা, রাবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি জনাব গৌরব চাকমা, ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান জনাব নেইংম্রাচিং চৌধুরী ননী, রাবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি ও সহকারি রেজিস্ট্রার (একাডেমিক) জনাব মাহবুব আরা এবং শিক্ষক, কর্মকর্তা এবং কর্মচারীবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সিএসই বিভাগের সহকারি অধ্যাপক জনাব ধীমান শর্মা।

 

আলোচনা সভায় বক্তারা মহান মুক্তিযুদ্ধে যারা শহীদ হয়েছেন তাঁদের এবং বীর মুক্তিযোদ্ধাগনের অবদানের কথা স্মরণ করে আগামীর উন্নত, সমৃদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে বিভিন্ন দিক নির্দেশনা প্রদান করেন।

 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর বলেন, “স্বাধীনতার এই কষ্টের কথা, দুঃখের কথা কখনো বলে শেষ করা যাবেনা। বাঙালী এই বিশ্বে যতদিন বেঁচে থাকবে ততদিন এই কষ্ট করে ছিনিয়ে আনা স্বাধীনতার কথা স্মরণ করবে। সেজন্য আমি বাঙালির অবিংবাদিত নেতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করতে চাই এই স্বাধীনতার জন্য তিনি তিনি নিজের জীবনকে বিলিয়ে দিয়েছেন। তারপরেও তিনি মাথা নত করেননি।জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসমাপ্ত কাজ এই সোনার বাংলাদেশ গড়ার জন্য তাঁর সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।”

তিনি আরও বলেন, দেশের এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে। আগামী ২০৪১ সালের ভিশন স্মার্ট বাংলাদেশ হয়ে প্রযুক্তিতে বিশ্বে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারি সবার কাছে এ আহবান জানান।  

 

আলোচনা সভা শেষে মহান বিজয় দিবস-২০২৩ উপলক্ষে রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয় এবং বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিচালনা করা হয় এবং মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে ছাত্র হল ও ছাত্রী হলে উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হয়।

 

 

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

তারিখঃ ১৬/১২/২০২৩ খ্রিঃ 

 

news

11 Dec 2023 - 11 Dec 2023

রাবিপ্রবিতে বিশ্ব পর্বত দিবস পালিত

রাবিপ্রবিতে বিশ্ব পর্বত দিবস পালিত

আজ ১১ ডিসেম্বর ২০২৩ তারিখ রাবিপ্রবিতে ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স বিভাগের আয়োজনে “রিস্টোরিং মাউন্টেইন ইকোসিস্টেম” এ প্রতিপাদ্যে বিশ্ব পর্বত দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন-১ থেকে সকাল ১১:০০ ঘটিকায় এক র‍্যালী বের করা হয়। র‍্যালীটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দীপংকর তালুকদার ভবনের সামনে এসে শেষ হয়।
দিবসটি উপলক্ষে দীপংকর তালুকদার ভবনের সম্মেলন কক্ষে সেমিনারের আয়োজন করা হয়। সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাবিপ্রবি'র  মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাবিপ্রবি'র প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা।
এছাড়া প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগের অধ্যাপক প্রফেসর মোঃ রুহুল আমিন, আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাবিপ্রবি রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ ইউসুফ, ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও চেয়ারম্যান নেইংম্রাচিং চৌধুরী ননি, ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারী অধ্যাপক খোকনেশ্বর ত্রিপুরা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স বিভাগের চেয়ারম্যান ড. নিখিল চাকমা।  স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. সুপ্রিয় চাকমা ও  সঞ্চালনা করেন একই বিভাগের প্রথম ব্যাচের শিক্ষার্থী নিশাত সালসাবিল।
অনুষ্ঠানে রাবিপ্রবি’র বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক,কর্মকর্তা,কর্মচারীগণ ও শিক্ষার্থীগণ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভাইস চ্যান্সেলর বলেন, মানুষের অপরিকল্পিত গাছপালা ধ্বংসের কারণে প্রকৃতি তার রূপ হারিয়ে ফেলছে। প্রতিদিন নানা কাজে ব্যবহারের জন্য নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস আমরা পাহাড়ের উপর নির্ভরশীল। তাই আমাদের এ পাহাড়কে  রক্ষা করার জন্য সবাইকে সচেতন হতে হবে। বেশি করে গাছ রোপন করতে হবে। তাহলে আমরা আমাদের প্রকৃতিকে আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে পারবো।  

প্রো-ভিসি বলেন, বিশ্বে প্রকৃতির ইকো সিস্টেম দিন দিন ধ্বংস হচ্ছে।ফলে মানুষের খাদ্য ও বাসস্থানে সমস্যা হচ্ছে। পাহাড় আমাদের জীবনের সাথে জড়িত। আমাদের ইকো সিস্টেম নষ্ট হচ্ছে। ছড়া, ঝর্ণা শুকিয়ে যাচ্ছে। এগুলো আমাদের মানবসৃষ্টের কারণে হচ্ছে।তাই আমাদের ইকো সিস্টেম পুনরুদ্ধারের জব্য সবাইকে সচেতন হতে হবে।  



জনসংযোগ দপ্তর
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
তারিখঃ ১১/১২/২০২৩ খ্রিঃ

30 Nov 2023 - 30 Nov 2023

রাবিপ্রবি’তে ১৭-২০ গ্রেডের কর্মচারিদের পেশগত দক্ষতা উন্নয়নে অভ্যন্তরীণ প্রশিক্ষণ

আজ ৩০ নভেম্বর ২০২৩ তারিখ রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসিউরেন্স সেল (আইকিউএসি) এর আয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৭-২০ গ্রেডের কর্মচারীদের পেশগত দক্ষতা উন্নয়নে সকাল ১০:০০ ঘটিকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবনের সম্মেলন কক্ষে প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। প্রশিক্ষণে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাবিপ্রবি'র মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর ও আইকিউএসি'র পরিচালক প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাবিপ্রবি’র মাননীয় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর ও আইকিউএসি'র অতিরিক্ত পরিচালক প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা। প্রশিক্ষণে প্রশিক্ষক হিসেবে রাবিপ্রবি’র রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ ইউসুফ এবং আইকিউএসি'র অতিরিক্ত দায়িত্ব জনাব মাহবুব আরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠাটি  সঞ্চালনা করেন আইকিউএসি'র  অতিরিক্ত পরিচালক (ইটিএল) ও সিএসই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জনাব ধীমান শর্মা।

 

প্রশিক্ষণে প্রধান অতিথি হিসেবে রাবিপ্রবি'র মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার বলেন, অফিসের একজন কর্মচারীর আচার-আচরণে সট, সততা ও আন্তরিক হতে হবে। কাজ ও কর্মস্থলের প্রতি মায়া থাকতে হবে। তাহলে তিনি কর্মক্ষেত্রে অনেক সফল হবেন। প্রত্যেককে নিজ নিজ কাজের প্রতি ভালোবাসা থাকতে হবে। কিভাবে এ বিশ্ববিদ্যালয়কে উন্নতির দিকে নিয়ে যাওয়া যায় সবাইকে একসাথে কাজ করা, সফট স্কীলে দক্ষ হওয়া এবং যারা দক্ষ নয় তাদেরকে প্রয়োজনে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ করে গড়ে তোলে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের জন্য সবাইকে ভূমিকা রাখতে হবে। 

 

প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুসারে এখানে সবাই কর্মচারী এবং প্রয়োজনে সার্বক্ষণিক কাজ করার মন মানিসকতা থাকতে হবে। অফিস সময়সূচী অনুযায়ী সবাইকে সচেতন থাকার জন্য উদাত্ত আহবান জানান। একজন কর্মচারীর অতিরিক্ত যেকোন দায়িত্ব পালনের আগ্রহের মানসিকতার মাধ্যমে প্রতিষ্ঠান এগিয়ে যাবে।  

 

রাবিপ্রবি’র রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ ইউসুফ বলেন, যিনি যত দক্ষ তার ভবিষ্যৎ তত উজ্জ্বল হবে সেজন্য সবাইকে যেকোন কাজে দক্ষ হওয়ার জন্য আহবান জানান। একজন দক্ষতা সম্পন্ন লোক কম শিক্ষিত হলেও উচ্চ শিক্ষিত লোকের থেকে বেশি কার্যক্রম সুচারুভাবে সম্পন্ন করতে পারেন। এখানে শিক্ষাগত যোগ্যতা আসল মাপকাঠি নয়। সেজন্য নিজেকে সব সময় যেকোন কাজে দক্ষতা অর্জন, সঠিক সময়ে অফিসে আসা ও ত্যাগ করা দরকার। একজন কর্মচারী আস্থা ও নিষ্ঠার সাথে কাজে মনোযোগী হওয়া নিজের কাজকে ভালোবাসা এবং পরস্পরের প্রতি সহানুভূতি সহযোগিতার মনোভাব পোষণ করা। 

 

প্রশিক্ষণে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগ দপ্তরের কর্মচারীগণ প্রশিক্ষনার্থী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।   

 

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

তারিখঃ ৩০/১১/২০২৩ খ্রিঃ

 

29 Nov 2023 - 29 Nov 2023

বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তির আলোকে রাবিপ্রবি’তে প্রশিক্ষণ আয়োজন

আজ ২৯ নভেম্বর ২০২৩ তারিখ রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসিউরেন্স সেল (আইকিউএসি) এর আয়োজনে জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়ন অনুসারে “Training on APA: Formulation, Implementation and Challenges” শীর্ষক এক প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়। সকাল ১০:০০ ঘটিকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবনের সম্মেলন কক্ষে এ প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়।  প্রশিক্ষণে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের মাননীয় সদস্য প্রফেসর ড. মোঃ আবু তাহের এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাবিপ্রবি'র মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার, মাননীয় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা। এছাড়া রাবিপ্রবি’র রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ ইউসুফ এবং ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসিউরেন্স সেল (আইকিউএসি) এর অতিরিক্ত পরিচালক ও সিএসই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ধীমান শর্মা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সহকারী রেজিস্ট্রার (এস্টেট) ও এপিএ ফোকাল পয়েন্ট জনাব সেতু চাকমা।

প্রশিক্ষণে প্রধান অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের মাননীয় সদস্য প্রফেসর ড. মোঃ আবু তাহের বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে সুনির্দিষ্টভাবে গবেষণার প্লান থাকতে হবে। গবেষণা মানে মুক্ত চর্চার বিষয়। এখানে প্রতিটি শিক্ষকদের গবেষণার ক্ষেত্রে অনেক গুরুত্ব দিতে হবে। তা না হলে এভাবে বিশ্ববিদ্যালয় এগিয়ে যাবেনা। এখন স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার জন্য যে চারটি মূল স্তম্ভ স্মার্ট সিটিজেন, স্মার্ট সোসাইটি, স্মার্ট ইকোনমি ও স্মার্ট গভর্নমেন্ট  ঠিক করা হয়েছে সেগুলো সামনে রেখে প্রতিটা কাজে এগিয়ে যেতে হবে। তবেই স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে আমরা ভূমিকা রাখতে পারবো। এখন ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে সেজন্য এসডিজি ২০৩০ এবং ভিশন ২০৪১ বাস্তবায়নে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। সামনে আসছে ক্যাশলেস সোসাইটি, এবং পেপারলেস অফিস। এসব মোকাবেলা করার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা এবং কর্মচারীদের  প্রযুক্তির ক্ষেত্রে অনেক দক্ষ হতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের নানা ইনোভেটিভ আইডিয়া, ইনোভেটিভ এডুকেশনের ধারণা নিয়ে যেন বেড়ে উঠতে পারে সেভাবে একাডেমিক মাস্টার প্লান করতে হবে।
তিনি আরও বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে যে এপিএ চালু হয়েছে সে মোতাবেক অনেক গুরুত্ব দিতে হবে। সঠিক সময়ে এপিএ রিপোর্ট আপডেট ও প্রমাণক হিসেবে সব প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট সংযুক্ত করতে হবে তা না হলে এপিএ পারফর্মেন্সের ক্ষেত্রে পিছিয়ে যেতে হবে। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা থাকতে হবে। দুর্নীতির বিরুদ্ধে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। সবাইকে নিয়ে দেশকে এবং এ বিশ্ববিদ্যালয়কে এগিয়ে নিতে হবে। এছাড়া মানব সম্পদ উন্নয়নে একসাথে কাজ করতে হবে।  

রাবিপ্রবি'র মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে আমাদের এই বিশ্ববিদ্যালয় নানা সীমাবদ্ধতার মধ্যেও শিক্ষক, কর্মকর্তা এবং কর্মচারীদের নিয়ে সামনে এগিয়ে যাচ্ছে। স্বপ্নের স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে আমরা যেন এই বিশ্ববিদ্যালয় অবদান রাখতে পারি সেজন্য এখানে যারা কর্মরত রয়েছেন তাদেরকে নিজেদের দক্ষ করে গড়ে তোলার আহবান জানান। এছাড়া তিনি আরও বলেন, এই বিশ্ববিদ্যালয়কে এগিয়ে নেয়ার জন্য যে পরিমাণ অবকাঠামো এবং অন্যান্য একাডেমিক যে সুযোগ সুবিধা থাকার কথা রয়েছে তা খুবই নগণ্য। তাই এগুলো পূরণের জন্য বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনকে অনেক গুরুত্ব দিতে হবে।

প্রশিক্ষণে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক,কর্মকর্তা এবং কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।

জনসংযোগ দপ্তর
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
তারিখঃ ২৯/১১/২০২৩ খ্রিঃ

 


news

25 Nov 2023 - 26 Nov 2023

স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে রাবিপ্রবি’তে কর্মশালা আয়োজন

স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে রাবিপ্রবি’তে কর্মশালা আয়োজন

আজ ২৫ নভেম্বর ২০২৩ তারিখ রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসিউরেন্স সেল (আইকিউএসি) এর আয়োজনে “স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণ” বিষয়ক এক কর্মশালার আয়োজন করা হয়। সকাল ১০:০০ ঘটিকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবনের সম্মেলন কক্ষে এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। রাবিপ্রবি'র মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার এর সভাপতিত্বে কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের মাননীয় সদস্য প্রফেসর ড. মোঃ সাজ্জাদ হোসেন। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের রিসার্চ সাপোর্ট এন্ড পাবলিকেশন এর পরিচালক ড. মোঃ ফখরুল ইসলাম, বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট কমিউনিকেশনস এন্ড ট্রেনিং (আইএমসিটি) বিভাগের প্রোগ্রামার দ্বীজেন্দ্র চন্দ্র দাশ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালন করেন রাবিপ্রবি’র রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ ইউসুফ।

কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে প্রফেসর ড. মোঃ সাজ্জাদ হোসেন সাজ্জাদ হোসেন বলেন, স্মার্ট সিটিজেন গড়ার লক্ষ্যে সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে। শিক্ষাকে ধারণ করে গবেষণা চর্চার মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয় এগিয়ে যাবে। গবেষণা লব্ধ জ্ঞান কাজে লাগিয়ে  শিক্ষা ক্ষেত্র এবং দেশ এগিয়ে যাবে এবং তখনই স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে সহায়ক হবে।  তথ্য প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে শিক্ষার পরিবেশ সুস্থভাবে পরিচালনা করতে হবে। শিক্ষার্থীরা যেন সুস্থভাবে পড়াশুনা করতে পারে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা গবেষণায় বেশি জোর দিতে হবে। প্রচুর উদ্ভাবনী কাজ করতে হবে, নতুন নতুন প্রযুক্তির দিকে শিক্ষার্থীদের দাবিত হতে হবে।  তাহলে আমি আশা করি স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে অনেক ভূমিকা রাখবে। শিক্ষা ও গবেষণার  উন্নয়নের জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। তরুণ প্রজন্ম আধুনিক ও যুগোপযোগী শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে গ্লোবাল সিটিজেন হিসেবে নিজেকে  তৈরি করতে সক্ষম । যেন তারা স্মার্ট বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে পারে।

 

রাবিপ্রবি'র মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার বলেন, তরুণ প্রজন্মের হাত ধরেই প্রযুক্তিনির্ভর উন্নত-সম্মৃদ্ধ এবং সর্বোপরি বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার স্বপ্নের স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে সক্ষম হবো। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সর্বদা বলেন তিনি আমাদের তরুণ প্রজন্মের প্রতি আস্থাশীল। আমরাও বিশ্বাস করি, তরুণদের হাত ধরেই প্রযুক্তিনির্ভর উন্নত-সম্মৃদ্ধ এবং সর্বোপরি বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার স্বপ্নের স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে সক্ষম হবে। তিনি আরও বলেন, আমাদের এই তরুণদের প্রযুক্তি ক্ষেত্রে অনেক মেধাবী করে তুলতে হলে আমাদের আরও পর্যাপ্ত পরিমাণে বিনিয়োগ দরকার । কিন্তু আমাদের এই ছোট্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে এখনো নানা অবকাঠামোর, গবেষণার সরঞ্জামাদি সহ নানা ধরণের অভাব রয়েছে। সেজন্য আমি বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের মাধ্যমে এইসব অভাব পূরণের আবদার করতে চাই । তাহলে আমরা আমাদের শিক্ষার্থীদের স্বপ্নের স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে অনেক দক্ষ করে গড়ে তুলতে পারবো।

 

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের রিসার্চ সাপোর্ট এন্ড পাবলিকেশন এর পরিচালক ড. মোঃ ফখরুল ইসলাম বলেন, বর্তমান বিশ্বে শিক্ষার্থীদের সৃজনশীলতাকে কাজে লাগাতে হবে। সেই সাথে বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণায় অনেক মনোযোগ দিতে হবে। যে শিক্ষার্থী যত বেশি সৃজনশীল চিন্তা করতে পারবে সে তত বেশি বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে পারবে। সেই সাথে নানা ধরণের সৃজনশীল চিন্তায় এ শিক্ষার্থীদের মনোযোগী হতে হবে। মনে রাখতে হবে স্মার্ট তরুণ প্রজন্ম আগামীতে বাংলাদেশকে নেতৃত্বে দিতে সক্ষম হবে। এগুলো থাকলে একটা বিশ্ববিদ্যালয় অনেক দূর এগিয়ে যাবে এবং র‍্যাংকিংয়ের ক্ষেত্রেও যথাযোগ্য  স্থান অর্জন করতে সক্ষম হবে। 

 

 

বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট কমিউনিকেশনস এন্ড ট্রেনিং (আইএমসিটি) বিভাগের প্রোগ্রামার দ্বীজেন্দ্র চন্দ্র দাশ পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে ই-গভর্ন্যান্স ও উদ্ভাবন কর্মপরিকল্পনা ও স্মার্ট বাংলাদেশ বিষয়ে তুলে ধরেন। তিনি বলেন, স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের জন্য আমাদের দেশের মানুষদের স্মার্ট হতে হবে। সরকারের প্রায় সব দপ্তরে এখন ডি-নথি চালু হয়েছে। এ ডি-নথির চালুর ফলে প্রশাসনিক ও একাডেমিক ক্ষেত্রে কাজের গতিশীলতা বৃদ্ধি পেয়েছে।  তাছাড়া সময় ও কাগজের সাশ্রয় হচ্ছে  এবং বলাবাহুল্য এর মাধ্যমে  প্রতিটি কাজে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার জায়গাটিও নিশ্চিত হবে ।

 

অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক,কর্মকর্তা, কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

তারিখঃ ২৫/১১/২০২৩ খ্রিঃ

 

news

21 Nov 2023 - 27 Nov 2023

রাবিপ্রবি’তে বিশ্ব মাৎস্য দিবস পালিত

রাবিপ্রবি’তে বিশ্ব মাৎস্য দিবস পালিত

 

আজ ২১ নভেম্বর ২০২৩ তারিখ রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিশারিজ এন্ড মেরিন রিসোর্সেস টেকনোলজি বিভাগের আয়োজনে বিশ্ব মাৎস্য দিবস পালন করা হয়। দিবসটি উপলক্ষে সকালে প্রশাসনিক ভবন-১ থেকে এক বর্ণাঢ্য র‍্যালীর আয়োজন করা হয়। র‍্যালীটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করে দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবন-১ এসে শেষ হয়।

দিবসটি উপলক্ষে দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবনের সম্মেলন কক্ষে এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাবিপ্রবি'র মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ ইউসুফ, বাংলাদেশ ফিশারিজ রিসোর্স ইন্সটিটিউট, নদী উপকেন্দ্র, রাঙ্গামাটি এর সিনিয়র সায়েন্টিফিক অফিসার মোঃ ইশতিয়াক হায়দার উপস্থিত ছিলেন। এর আগে মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার উপস্থিত অতিথিবৃন্দের সাথে ফিশারিজ এন্ড মেরিন রিসোর্সেস টেকনোলজি বিভাগের শিক্ষার্থীদের তৈরিকৃত বিভিন্ন প্রজেক্ট ঘুরে দেখেন ।

সেমিনারে কী নোট স্পীকার হিসেবে বাংলাদেশের মাৎস্য সম্পদ নিয়ে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিশারিজ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ শহীদুল আলম (শাহীন) এবং প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ওশেনোগ্রাফি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম সরকার।

সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিশারিজ এন্ড মেরিন রিসোর্সেস টেকনোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা।

কী নোট স্পীকার বলেন, দেশে অসাধু জেলে ও ব্যবসায়ীদের কারণে দিন দিন মাৎস্য সেক্টর ধ্বংস হচ্ছে। জেলেদের বুঝাতে হবে মাছের পোনা ধরা যাবেনা। আর বাজারে বিক্রি করা যাবেনা। এভাবে দেশে মাৎস্য সম্পদ নিরাপদ হবে। দেশে দিন দিন বিভিন্ন প্রজাতির মাছের বিলুপ্ত হচ্ছে। ডিম ছাড়ার পর থেকে মাছ না ধরা এবং মাছ ধরা বন্ধকালীন সময়ে অঙ্গীকার করতে হবে নিজেরা বাজার থেকে মাছ কিনবোনা। তাহলে জেলে বা ব্যবসায়ীরা বাজারে মাছ বিক্রি করার উৎসাহ পাবেনা। এভাবে প্রতিবছর দেশে মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে।

সিনিয়র সায়েন্টিফিক অফিসার মোঃ ইশতিয়াক হায়দার বলেন, দেশে মাৎস্য সেক্টরে গুরুত্ব অপরিসীম। কাপ্তাই লেকে অনেক প্রজাতির এবং বড় বড় মাছ ছিল। কিন্তু এখন সেগুলো নেই। এখন লেকে শুধু চাপিলা আর কেচকি মাছে ভরপুর। তাই এখানে মাছের বিভিন্ন প্রজাতি নিয়ে ব্যাপক গবেষণা এবং সম্মিলিতভাবে কাজ করা দরকার। কাপ্তাই লেকের সোনালী অতীত ফিরিয়ে আনতে সকলের একান্ত প্রচেষ্টা দরকার। কাপ্তাই লেক দিন দিন দূষিত হচ্ছে। এ দূষিত হওয়ার ফলে কাপ্তাই লেকের দেশীয় প্রজাতির মাছ হারিয়ে যাচ্ছে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ওশেনোগ্রাফি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম সরকার বলেন, মাৎস্য সম্পদের ইকো সিস্টেম যে পরিমাণে দূষিত হচ্ছে, সে হারে তা আর পূরণ হবেনা। একসময় বুড়িগংগায় অনেক মাছ পাওয়া যেতো। কিন্তু এখন আর পাওয়া যাচ্ছেনা। যেগুলো পাওয়া যায় সেগুলো অনেক দূষিত মাছ, যা খাওয়ার অযোগ্য। ঠিক তেমনি সচেতন না হলে কাপ্তাই লেকের অবস্থা একদিন এরকম হবে যদি আমরা এ লেক এবং লেকের মাছ রক্ষার্থে কাজ না করি ।

ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার বলেন, যে পেশায় থাকেন না কেন আমাদের মাৎস্য সম্পদকে ভালোবাসতে হবে। তাহলে মাৎস্য সম্পদ ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা পাবে। আর এ সম্পদ রক্ষা পেলে দেশের উন্নয়ন হবে।

সভাপতির বক্তব্যে প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা বলেন, কাপ্তাই লেকে মৎস্য সম্পদ নিয়ে ফিশারিজ এন্ড মেরিন রিসোর্সেস টেকনোলজি বিভাগের শিক্ষার্থীদের কাজ করতে হবে। তিনি কাপ্তাইকে লেকে মাছের উৎপাদন বাড়িয়ে দেশের মানুষের প্রাণীজ প্রোটিনের চাহিদা পূরণে কাজ করার জন্য শিক্ষার্থীদের পরামর্শ দেন। তিনি আরও বলেন, কাপ্তাই লেক দিন দিন অনেক দুষিত হচ্ছে। তিনি এ দুষিত লেককে কিভাবে রক্ষা করা যায় সেজন্য সবাইকে একসাথে কাজ করার আহবান জানান।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালন করেন রাবিপ্রবি’র ফিশারিজ এন্ড মেরিন রিসোর্সেস টেকনোলজি বিভাগের ২য় ব্যাচের শিক্ষার্থী স্বাধীন ত্রিপুরা এবং ফাতেমা তুজ জোহরা।

অনুষ্ঠানে ফিশারিজ এন্ড মেরিন রিসোর্সেস টেকনোলজি বিভাগের শিক্ষার্থীসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক,কর্মকর্তা, কর্মচারী এবং শিক্ষার্থীগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

জনসংযোগ দপ্তর

 

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

news

19 Nov 2023 - 20 Nov 2023

রাবিপ্রবি'তে ম্যানেজমেন্ট দিবস পালিত

রাবিপ্রবি'তে ম্যানেজমেন্ট দিবস পালিত

 

গতকাল ১৯ নভেম্বর ২০২৩ খ্রিঃ রবিবার রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট বিভাগের দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষ্যে বিভিন্ন অনুষ্ঠান আয়োজন করেছে।

 

সকাল ১১:০০ ঘটিকায় ম্যানেজমেন্ট বিভাগের উদ্যোগে এক বর্ণঢ্যা র‍্যালী বের করা হয় । র‍্যালিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে এসে শেষ হয়। এরপর কেক কেটে রাবিপ্রবি’র মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার ম্যানেজমেন্ট ডে ২০২৩ শুভ উদ্বোধন করেন। এছাড়া ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সব ব্যাচের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে ফ্ল্যাশ মব গান ও নাচ পরিবেশন করা হয়।

 

এরপর ম্যানেজমেন্ট বিভাগের উদ্যেগে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে প্রক্টর অফিসের সামনে নিরিবিলি পরিবেশে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাবিপ্রবি মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড.কাঞ্চন চাকমা। এছাড়া ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও চেয়ারম্যান নেইংম্রাচিং চৌধুরী ননী, ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ভারপ্রাপ্ত) সপ্তর্ষি চাকমাসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক,কর্মকর্তাগণ এবং শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

সন্ধ্যায় ম্যানেজমেন্ট বিভাগের উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং স্থানীয় ব্যান্ড সঙ্গীতের আয়োজন করা হয়।

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

 

news

14 Nov 2023 - 20 Nov 2023

রাবিপ্রবিতে সিএসই দিবস পালিত

আজ ১৪ নভেম্বর ২০২৩ তারিখ মঙ্গলবার রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষ্যে বিভিন্ন অনুষ্ঠান আয়োজন করেছে।   

সকালে সিএসই বিভাগের উদ্যোগে এক বর্ণঢ্যা র‍্যালী বের করা হয় । র‍্যালিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করে দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবনের সামনে এসে শেষ হয়।

 

এরপর সিএসই বিভাগের উদ্যেগে বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার সম্মেলন কক্ষে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।  সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাবিপ্রবি মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার, বিশেষ অতিথি হিসেবে প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা এবং রেজিস্ট্রার মোহাম্মড ইউসুফ। সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন সিএসই বিভাগের চেয়ারম্যান জনাব ধীমান শর্মা। এছাড়া রাবিপ্রবি প্রক্টর এবং সিএসই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জনাব  জুয়েল সিকদার, ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান ও সহকারী অধ্যাপক নেইংম্রাচিং চৌধুরী ননী,  সিএসই বিভাগের প্রভাষক ও সিএসই ডে উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক মোঃ সাহেদ সরওয়ার,

 

 

বিকালে কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের উদ্যেগে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে  এবং ম্যানেজমেন্ট বিভাগের উদ্যেগে রাঙ্গামাটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠি সাংস্কৃতিক ইন্সটিটিউট হল রুমে নিজ নিজ বিভাগের  শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।

 

 

 

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

 

news

17 Nov 2023 - 18 Nov 2023

রাবিপ্রবি’তে শিক্ষকদের আউটকাম বেজড কারিকুলাম প্রশিক্ষণ সম্পন্ন
রাবিপ্রবি’তে শিক্ষকদের আউটকাম বেজড কারিকুলাম প্রশিক্ষণ সম্পন্ন
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসিউরেন্স সেল (আইকিউএসি) এর আয়োজনে আউটকাম বেজড কারিকুলাম প্রণয়নের লক্ষ্যে ১৭-১৮ নভেম্বর ২ দিনব্যাপী এক প্রশিক্ষণ কর্মশালা আজ শেষ হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার ভবন একাডেমিক ভবনের সম্মেলন কক্ষে এ প্রশিক্ষণ আয়োজন করা হয়। প্রশিক্ষণে সমাপনী দিনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা। এছাড়া অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদান করেন রাবিপ্রবি’র রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ ইউসুফ, সিএসই বিভাগের চেয়ারম্যান ও ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসিউরেন্স সেল (আইকিউএসি) এর অতিরিক্ত পরিচালক ধীমান শর্মা। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সহকারী রেজিস্ট্রার (এস্টেট) সেতু চাকমা।
কর্মশালায় রিসোর্স পার্সন হিসেবে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগের অধ্যাপক প্রফেসর মোঃ রুহুল আমিন এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেন উপস্থিত ছিলেন।
রাবিপ্রবি’র পাঁচটি বিভাগের শিক্ষকগণ এ প্রশিক্ষণে প্রশিক্ষনার্থী হিসেবে অংশগ্রহণ করেন।
জনসংযোগ দপ্তর
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
তারিখঃ ১৮/১১/২০২৩ খ্রিঃ

 

news

15 Nov 2023 - 15 Nov 2024

রাবিপ্রবি ও ইবি’র মধ্যে সমঝোতা স্মারক চুক্তি

রাবিপ্রবি ও ইবি’র মধ্যে সমঝোতা স্মারক চুক্তি

শিক্ষা ও গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনার লক্ষ্যে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রাবিপ্রবি) সাথে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) এক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। আজ বুধবার বিকাল ৩:০০ ঘটিকায় রাবিপ্রবি’র বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্ণারের সভা কক্ষে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের পক্ষে জনসংযোগ দপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ সাইফুল আলম সমঝোতা স্মারক বিনিময় করেন ও ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মো. আলমগীর হোসেন ভুঁইয়া সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন। পরে তাঁরা পরস্পরের সাথে স্বাক্ষরিত স্মারক বিনিময় করেন।

সমঝোতা স্মারক অনুষ্ঠানে রাবিপ্রব’র মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড.সেলিনা আখতার, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড.কাঞ্চন চাকমা, সিএসই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও প্রক্টর জুয়েল সিকদার, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো- ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ মাহবুবুর রহমান, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এইচ এম আলি হাসান এবং উপ-রেজিস্ট্রার চন্দন কুমার দাশ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া রাবিপ্রবি’র বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকগণ, কর্মকর্তা এবং কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।    

স্বাক্ষরিত সমঝোতা স্মারকের আওতায় উভয় প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শিক্ষক ও শিক্ষার্থী বিনিময় এবং যৌথ গবেষণা, প্রকাশনাসহ অন্যান্য একাডেমিক কার্যক্রম এবং দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে সাংস্কৃতিক সেতুবন্ধন তৈরি করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

 

 

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

তারিখঃ ১৫/১১/২০২৩ খ্রিঃ

 

01 Nov 2023 - 02 Nov 2023

রাবিপ্রবিতে স্মার্ট কর্মসংস্থান মেলা অনুষ্ঠিত

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সহযোগিতায় “রাঙ্গামাটি স্মার্ট কর্মসংস্থান মেলা ২০২৩’ আজ সকাল ১১:৩০ ঘটিকায় রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার ভবনের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মাননীয় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা। এছাড়া রাবিপ্রবি’র রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ ইউসুফ, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল চট্টগ্রামের আঞ্চলিক পরিচালক প্রকৌশলী মো. ফিরোজ আলমসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকগণ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান ধীমান শর্মা। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন কোডার্স ট্রাস্ট বাংলাদেশের প্রকল্প ও যোগাযোগ শাখার বিভাগীয় প্রধান প্রকৌশলী কাজী তারানা।

 

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা বলেন, এখন যুগটা হচ্ছে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের যুগ। এ যুগে ঠিকে থাকতে হলে প্রযুক্তি ক্ষেত্রে নিজেদের দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে। তা না হলে প্রতিযোগিতায় ঠিকে থাকা অনেক চ্যালেঞ্জ হয়ে যাবে।

 

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল চট্টগ্রামের আঞ্চলিক পরিচালক প্রকৌশলী মো. ফিরোজ আলম বলেন, স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার জন্য তরুণ প্রজন্মকে এগিয়ে আসতে হবে। দেশ এখন অনেক প্রযুক্তি নির্ভর । এ প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে চাকরির পেছনে না ছুটে নিজেকে চাকরিদাতা হিসেবে গড়ে তুলতে হবে।

 

এছাড়া মেলায় দক্ষতা উন্নয়নঃ প্রস্তুতি, চ্যালেঞ্জ ও করণীয় সম্পর্কে বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরেন কোডার্স ট্রাষ্ট বাংলাদেশ এর মেন্টর এবং ওয়েব ডেভেলপমেন্ট স্পেশালিস্ট সিফাত তানভীর, মার্কেট প্লেস এবং তার ইতিবৃত্তান্ত বিষয়ে উপস্থাপন করেন কোডার্স ট্রাষ্ট বাংলাদেশ এর মেন্টর মনোয়ার হোসেন, ফ্রিল্যান্সিংঃ সম্ভাবনা ও সবচেয়ে চাহিদা সম্পন্ন দক্ষতা নিয়ে উপস্থাপন করেন কোডার্স ট্রাষ্ট বাংলাদেশ এর কান্ট্রি ডিরেক্টর এম এ জি ওসমানী। এছাড়া মেলায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপস্থিত বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীদের প্রশ্ন উত্তর পর্ব নিয়ে ছিল নানা ধরনের আয়োজন। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের প্রায় ২০০ শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন।

 

 

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

তারিখঃ ১ নভেম্বর ২০২৩

 

news

18 Oct 2023 - 18 Oct 2024

রাবিপ্রবিতে শেখ রাসেল এর ৫৯তম জন্মদিন ও শেখ রাসেল দিবস-২০২৩ উদযাপন ও দোয়া কামনা

“শেখ রাসেল দীপ্তিময়, নির্ভীক নির্মল দুর্জয়”এ  প্রতিপাদ্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেল এর ৫৯তম জন্মদিন ও শেখ রাসেল দিবস-২০২৩ পালন উপলক্ষে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার ভবনের সম্মেলন কক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।    

 

আলোচনা সভার আগে শেখ রাসেল এর ৫৯তম জন্মদিন ও শেখ রাসেল দিবস-২০২৩ উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন- ১ থেকে এক বর্নাঢ্য র‍্যালী বের করা হয়। র‍্যালীটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করে দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবনের সামনে এসে শেষ হয়। এরপর শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং দোয়া কামনা করেন রাবিপ্রবি মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার মহোদয়, রাবিপ্রবি প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমাসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্যরা।     

 

আলোচনা সভার শুরুতে শেখ রাসেল এর উপর নির্মিত প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন এবং বিশেষ দোয়া মাহফিল করা হয় । সভায় রাবিপ্রবি মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাবিপ্রবি প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা, সিএসই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও প্রক্টর জুয়েল সিকদার। সভায় সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ ইউসুফ। সভা সঞ্চালনা করেন রাবিপ্রবি জনসংযোগ দপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ সাইফুল আলম।  

এছাড়া আলোচনা সভায় রাবিপ্রবি’র কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান জনাব ধীমান শর্মা, ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও ছাত্রী হলের সহকারী প্রভোস্ট মোহনা বিশ্বাস, রাবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশন এর সভাপতি ও সহকারী রেজিস্ট্রার (একাডেমিক) মাহবুব আরা এবং রাবিপ্রবি কর্মচারী কল্যাণ সমিতির সভাপতি ও সিনিয়র মেডিকেল এসিস্ট্যান্স মোঃ কামাল হোসেন বক্তব্য প্রদান করেন।  

 

সভায় বক্তারা শিশু শেখ রাসেলকে হত্যা ইতিহাসের একটি জগণ্য অপরাধ হিসেবে আখ্যায়িত করেন। বক্তারা এরকম হত্যাকান্ড যেন ভবিষ্যতে বিশ্বে কোথাও না হয় এ কামনা করেন।

 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার বলেন, “ফুল প্রস্ফুটিত হওয়ার আগে শেখ রাসেলকে হত্যা করা হয়েছে। যা একটা জগণ্য অপরাধ ছিল। শিশু রাসেল বেঁচে থাকলে হয়তো দেশের জন্য জন্য এবং সারা বিশ্বে অনেক অবদান রাখতো।” তিনি আরো বলেন, ১৯৭৫ এর মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধংস করার জন্য এবং স্বাধীন বাংলাদেশ যেন মাথা উচু করে দাড়াতে না পারে ১৯৭৫ সালের শিশু রাসেলসহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু পরিবারকে হত্যা করা হয়েছে।

 

প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর ড. কাঞ্চন চাকমা বলেন, দেশের ইতিহাসে এ হত্যাকান্ড একটি জগণ্য হত্যা। এ হত্যাকান্ডকে ধিক্কার জানাই। এরকম হত্যা যেন আর না হয় সেজন্য সবাইকে সোচ্চার হতে হবে। শেখ রাসেল বেঁচে থাকলে দেশ তথা সারা বিশ্বে একজন সম্ভাবনাময়ী নেতা হতে পারতো। কিন্তু সে আশার প্রদীপ অকাল ঝরে ফেলা হয়েছে।

 

আলোচনা সভা শেষে রাবিপ্রবি প্রশাসনিক ভবনের পাশে বৃক্ষ রোপণ করেন রাবিপ্রবি মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা এবং রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ ইউসুফ। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং শিক্ষার্থীগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

জনসংযোগ দপ্তর

 

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

 

news

05 Oct 2023 - 12 Oct 2023

রাবিপ্রবিতে বিশ্ব শিক্ষক দিবস উদযাপন
রাবিপ্রবিতে বিশ্ব শিক্ষক দিবস উদযাপন
“কাঙ্ক্ষিত শিক্ষার জন্য শিক্ষকঃ শিক্ষক স্বল্পতা পূরণ বৈশ্বিক অপরিহার্যতা” শীর্ষক প্রতিপাদ্যে বিশ্ব শিক্ষক দিবস ২০২৩ আজ রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে উদযাপিত হয়। দিবসটি উপলক্ষ্যে সকাল ১১:০০ ঘটিকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন-১ থেকে এক বর্নাঢ্য র্যালী বের করা হয়। র্যালীটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষণ করে দীপংকর তালুকদার ভবনের সামনে এসে শেষ হয়। এরপর এক আলোচনা সভা আয়োজন করা হয়।
সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাবিপ্রবি’র মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার । এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা, প্রক্টর ও সিএসই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জুয়েল সিকদার, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান ও সহকারী অধ্যাপক ধীমান শর্মা, ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান ও সহকারী অধ্যাপক নেইংম্রাচিং চৌধুরী ননি, ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স বিভাগের চেয়ারম্যান ও সহকারী অধ্যাপক ড. সুপ্রিয় চাকমা এবং ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান ও সহকারী অধ্যাপক খোকনেশ্বর ত্রিপুরা এবং রাবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারী অধ্যাপক গৌরব চাকমা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ ইউসুফ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোহনা বিশ্বাস। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ এবং বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীগণ উপস্থিত ছিলেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার বলেন, শিক্ষকতা একটি মর্যাদাসম্পন্ন পেশা। প্রতিটি মা-বাবার পরেই শিক্ষার্থীর দ্বিতীয় অভিভাবক হচ্ছেন শিক্ষক। এজন্য মানুষ গড়ার কারিগর হিসেবে শিক্ষকের ভূমিকা সব চেয়ে বেশি। একজন শিক্ষক প্রতিটি শিক্ষার্থীদের কাছে একজন গাইডার ও মেন্টর হিসেবে কাজ করেন।
আলোচনা সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষকগণ শিক্ষকের যে সংকট চলছে তার গুরুত্ব তুলে ধরেন । এছাড়া গুণগত শিক্ষা প্রদান ও স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে হলে শিক্ষকদের যথাযোগ্য সম্মান ও জীবনমান উন্নয়নের ওপর নজর দেয়া উচিত বলেও মনে করেন বক্তারা।
জনসংযোগ দপ্তর
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
তারিখঃ ১২/১০/২০২৩ খ্রিঃ

 

09 Oct 2023 - 31 Oct 2023

রাবিপ্রবিতে বিশ্ব পর্যটন দিবস ২০২৩ উদযাপন উপলক্ষ্যে সেমিনার অনুষ্ঠিত
বিশ্ব পর্যটন দিবস ২০২৩ উপলক্ষ্যে “Career Opportunities in the Hotel and Resort Industry of Bangladesh” শীর্ষক এক সেমিনার আজ রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের উদ্যোগে আয়োজন করা হয় । সকাল ১১:০০ ঘটিকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার ভবনের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শুভ উদ্ভোধন ঘোষণা করেন রাবিপ্রবি’র মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার । এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা। সেমিনারে কী নোট স্পীকার হিসেবে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন কক্সবাজারের 'নিসর্গ হোটেল এন্ড রিসোর্ট' এর ম্যানেজিং পার্টনার ও 'সাম্পান হোটেল' এর পরিচালক জনাব মজিবুর রহমান স্বপন। মূল বিষয়ের উপর আলোচনা করেন পর্যটন হলিডে কমপ্লেক্স, রাংগামাটির ইউনিট ম্যানেজার জনাব আলোক বিকাশ চাকমা। সেমিনারে আরও উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার, পরিচালক (হিসাব), প্রক্টর এবং বিডিরেন-এর সিইও। সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান জনাব খোকনেশ্বর ত্রিপুরা ও সঞ্চালনা করেন একই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জনাব মোসা: হাবিবা। এছাড়া বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান ও শিক্ষকবৃন্দ, এবং রাংগামাটির 'গরবা ট্যুরিজম' এর প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন ।
ট্যুরিজম এন্ড ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চার ব্যাচের সকল শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে বিভিন্ন প্রশ্ন-উত্তর পর্বের মাধ্যমে সেমিনারটি প্রানবন্ত হয়ে উঠে। সেই সাথে বিভাগের শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করেন।
জনসংযোগ দপ্তর
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
তারিখঃ ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩

 

news

04 Oct 2023 - 04 Oct 2024

রাবিপ্রবিতে স্টার্টআপ কম্পাস বিশ্ববিদ্যালয় অ্যাক্টিভেশন প্রোগ্রাম-২০২৩ অনুষ্ঠিত
“তরুণ প্রজন্মের হাত ধরেই প্রযুক্তিনির্ভর উন্নত-সম্মৃদ্ধ এবং সর্বোপরি বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার স্বপ্নের স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে সক্ষম হবো। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সর্বদা বলেন তিনি আমাদের তরুণ প্রজন্মের প্রতি আস্থাশীল। আমরাও বিশ্বাস করি, তরুণদের হাত ধরেই প্রযুক্তিনির্ভর উন্নত-সম্মৃদ্ধ এবং সর্বোপরি বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার স্বপ্নের স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে সক্ষম হবে।” তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের আইডিয়া শীর্ষক প্রকল্পের উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদেরকে স্টার্টআপ হিসেবে তৈরির লক্ষ্যে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত “স্টার্টআপ কম্পাস বিশ্ববিদ্যালয় অ্যাক্টিভেশন প্রোগ্রাম-২০২৩” এ প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাবিপ্রবি ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার এ কথা বলেন।
আজ সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার ভবনের সম্মেলন কক্ষে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সহযোগিতায় আইডিয়া শীর্ষক প্রকল্পের উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদেরকে স্টার্টআপ হিসেবে তৈরির লক্ষ্যে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত “স্টার্টআপ কম্পাস বিশ্ববিদ্যালয় অ্যাক্টিভেশন প্রোগ্রাম-২০২৩” এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রাবিপ্রবি'র ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড.কাঞ্চন চাকমা, সিএসই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও প্রক্টর জুয়েল সিকদার।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আইসিটি বিভাগের আইডিয়া প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক (উপ-সচিব) ড. মো. মিজানুর রহমান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন আইসিটি বিভাগের ন্যাশনাল কনসাল্টেন্ট (এইচআর অ্যান্ড ফিন্যান্স) মো. নাজিম উদ্দিন। এছাড়া অনুষ্ঠানে রাবিপ্তবি’র বিভিন্ন বিভাগের চেয়াম্যানগণ,শিক্ষকমন্ডলী এবং কর্মকর্তাগণ এবং বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের উদ্দ্যেশ্যে পাওয়ারপয়েন্ট প্রেজেন্টেশনের মাধ্যেমে ব্যবসার নানা ধরণের আইডিয়া শেয়ার করেন স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর আশিকুর রহমান রুপক এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের আইডিয়া প্রকল্পের অপারেশন স্পেশালিষ্ট সিদ্ধার্থ গোস্বামী।
বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড.কাঞ্চন চাকমা বলেন, এই প্রোগ্রামের মাধ্যমে আমাদের শিক্ষার্থীরা আশাকরি অনেক কিছু অর্জন করতে পারবে এবং তাদের নিজেদের সৃজনশীলতাকে কাজে লাগিয়ে আইডিয়া জেনারেট করে উদ্যোক্তা তৈরি হবে। তাছাড়া এখন সারা বিশ্বে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব শুরু হয়েছে। এ জোয়ারে টিকতে হলে শিক্ষার্থীদের প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে নানা ধরণের কর্মদক্ষতায় পারদর্শী হতে হবে।
এছাড়া অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের উদ্যোক্তা ও স্টার্টআপ তৈরির লক্ষ্যে চতুর্থ শিল্পবিপ্লব ও স্মার্ট বাংলাদেশ বিনিমার্ণের মূল হাতিয়ার গুলোর চর্চা ও সফল বাস্তবায়নে উপযুক্ত পরিবেশ তৈরি করতে হবে এ ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয় হবে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্র।
জনসংযোগ দপ্তর
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
তারিখঃ ৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩

 

28 Sep 2023 - 28 Sep 2023

রাবিপ্রবিতে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ) উদযাপন

মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর আগমন ও ওফাতের পবিত্র স্মৃতি বিজড়িত ১২ রবিউল আউয়াল উপলক্ষ্যে আজ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ রোজ বৃহস্পতিবার, রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উদযাপন করা হয়েছে।

দিবসটি উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার ভবনের সম্মেলন কক্ষে এক ধর্মীয় আলোচনা সভা ও বিশেষ দোয়া মাহফিল আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা এবং প্রক্টর জুয়েল সিকদার। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ ইউসুফ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সিএসই বিভাগের চেয়ারম্যান ও সহকারী অধ্যাপক ধীমান শর্মা।
আলোচনা সভায় বক্তাগণ হযরত মুহাম্মদ (সা.) জীবনাদর্শ,বিশ্ববাসীকে মুক্তি ও শান্তির পথে আহ্বান করা, সমাজ থেকে সব ধরনের কুসংস্কার,গোড়ামী,অন্যায় ও অবিচার এবং দাসত্বের শৃঙ্খল ভেঙে মানব সত্তার কল্যাণে তাঁর গৃহীত পদক্ষেপ ও বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোকপাত করেন।
অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের চেয়াম্যানগণ,শিক্ষকমন্ডলী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীগণ উপস্থিত ছিলেন।
জনসংযোগ দপ্তর
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ খ্রিঃ

28 Sep 2023 - 28 Sep 2023

রাবিপ্রবিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার ৭৭ তম জন্মদিন উদযাপন
আজ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখ সকাল ১১:০০ ঘটিকায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার ৭৭ তম জন্মদিন উপলক্ষে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আয়োজনে দীপংকর তালুকদার ভবনের সম্মেলন কক্ষে বিশেষ দোয়া, মোনাজাত ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার, বিশেষ অতিথি হিসেবে প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা এবং প্রক্টর জুয়েল সিকদার। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ ইউসুফ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সিএসই বিভাগের চেয়ারম্যান ও সহকারী অধ্যাপক ধীমান শর্মা।
অনুষ্ঠানের শুরুতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার জীবন ও কর্মের উপর প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। এরপর কেক কেটে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার ৭৭ তম জন্মদিন পালন করা হয় এবং বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি মহান সৃষ্টিকর্তার অশেষ রহমত আছে,কোন অশুভ শক্তি তাঁর কোন ক্ষতি করতে পারবেনা । তিনি আরও বলেন, ৭৫ এর পরবর্তী সময়ে ইতিহাসের সবচেয়ে সফল রাষ্ট্র নায়ক,যিনি তাঁর মেধা-মনন, সততা,নিষ্ঠা,উদারমুক্ত গণতান্ত্রিক দৃষ্টিভঙ্গী ও দূরদর্শী নেতৃত্বে বাংলাদেশকে আজ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে উন্নীত করেছেন। স্বাধীনতার পরাজিত শক্তি তাঁকে প্রকাশ্যে ও অপ্রকাশ্যে হত্যার বহু চেষ্টা করেছে । কিন্তু এ দেশের জনগণের দোয়া ও মহান সৃষ্টিকর্তার অশেষ রহমতের কারণে তিনি মৃত্যুর দুযার হতে ফিরে আসা নীলকন্ঠ পাখি,মৃত্যুঞ্জয়ী মুক্ত মানবী। সময়ে কিংবা অসময়ে যেকোন প্রতিকূল পরিস্থিতিতে তিনি বাংলাদেশের মানুষের পাশে ঢাল হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন। করোনা মহামারী কিংবা বিশ্বজুড়ে বয়ে যাওয়া অর্থনৈতিক মন্দা যে কোন পরিস্থিতিতে অত্যন্ত বিশক্ষণতার সাথে বাংলাদেশকে পরিচালনা করেছেন; ফলে বাংলাদেশ এখন বিশ্বের অনেক দেশের কাছে উন্নয়নের রোল মডেল। হাজার বছর ধরে বঞ্চিত পার্বত্য এ জনপদের উন্নয়নে তিনি বিশেষ দৃষ্টি রেখেছেন, ফলশ্রুতিতে পার্বত্য অঞ্চলে আজ বহুবিধ উন্নয়ন কর্মকান্ড সম্পাদিত হয়েছে। আগামীতে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের লক্ষ্যে সকলকে ঐক্যবদ্ধ থাকার উদাত্ত্ব আহবান জানান। অনুষ্ঠানে তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সুস্থতা কামনায় দোয়া প্রার্থনা করেন।
প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে । রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের বিশ্ববিদ্যালয়। এ বিশ্ববিদ্যালয়কে সামনে এগিয়ে যাওয়ার সকলকে কাজ করার আহবান জানান।
এছাড়া রাবিপ্রবি’র বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যানগণ, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও শিক্ষার্থীগণ বক্তব্য প্রদান করেন। সভায় বক্তারা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু এবং সুস্থাস্থ্যের কামনা করেন এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর গৌরবের রাজনৈতিক জীবন নিয়ে আলোচনা করেন। বক্তারা বলেন, তিনি সোনার বাংলাদেশকে সারা বিশ্বে মাথা উঁচু করে দাঁড়ানোর জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।
অনুষ্ঠানে রাবিপ্রবি বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, দপ্তর প্রধান, শিক্ষক,কর্মকর্তা, কর্মচারী এবকং শিক্ষার্থীগণ উপস্থিত ছিলেন।
জনসংযোগ দপ্তর
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ খ্রিঃ
news

27 Sep 2023 - 01 Jan 1970

রাবিপ্রবিতে আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবসে তথ্য অধিকার নিয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে লিফলেট বিতরণ

তথ্যের অবাধ প্রবাহে ইন্টানেটের গুরুত্ব। “ইন্টারনেটে তথ্য পেলে জনমনে শান্তি মেলে”  এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আজ আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস ২০২৩ রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে পালিত হয়। দিবসটি উপলক্ষে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তরের তত্বাবধানে তথ্য অধিকার দিবসে তথ্য অধিকার নিয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ক্যাম্পাস ও শ্রেণী কক্ষে লিফলেট বিতরণ করা হয়। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার, প্রো- ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা, রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ, প্রক্টর জনাব জুয়েল সিকদারসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান, শিক্ষকগণ, কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ এবং শিক্ষার্থীগণ উপস্থিত ছিলেন।

এসময় মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার বিশ্ববিদ্যালয়ের সকলকে তথ্য অধিকার আইন সম্পর্কে জানা এবং এর যথাযথ তথ্য আদান প্রদানের আহবান জানান। তিনি আরও বলেন, সুশাসন প্রতিষ্ঠা এবং দুর্নীতি দূরীকরণে তথ্য অধিকার আইনের ভূমিকা অনেক।

 

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

 

01 Jan 1970 - 01 Jan 1970

রাবিপ্রবিতে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তির আলোকে ও সুশাসন প্রতিষ্ঠার নিমিত্তে "অংশীজনের সভা" অনুষ্ঠিত

জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল কর্মপরিকল্পনা ও বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তির আলোকে সুশাসন প্রতিষ্ঠার নিমিত্তে "অংশীজনের সভা" আজ মঙ্গলবার রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তাকুলদার সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।

 

বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার মহোদয় প্রধান অতিথি হিসেবে এ সভায় উপস্থিত ছিলেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড.  কাঞ্চন চাকমা এবং রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ উপস্থিত ছিলেন । এছাড়া সভায় রাবিপ্রবি’র বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যানগণ, শিক্ষক,কর্মকর্তা, কর্মচারী, শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকগণ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারি ও শিক্ষার্থীগণ বিশ্ববিদ্যালয়ের মান ও দক্ষতার বৃদ্ধির লক্ষ্যে মতামত তুলে ধরেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার বলেন, উন্নত-সমৃদ্ধ বিশ্ববিদ্যালয় বিনির্মাণে সবাই স্বচ্ছতাভাবে দায়িত্ব পালন করলে এই স্বপ্ন পূরণ করা সম্ভব। তিনি আরও বলেন, সুশাসন ও মানসম্মত প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তোলার জন্য সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ে যে বিভিন্ন সংকট রয়েছে তা অচিরেই কাটিয়ে উঠার আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

 

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের এপিএ বিকল্প ফোকাল পয়েন্ট ও সহকারী কম্পিউটার প্রোগ্রামার জনাব শাহেদ আনোয়ার।  

 

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

 

news

21 Jun 2023 - 30 Jun 2024

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২২-২০২৩ অর্থ বছরের শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রদান

দাপ্তরিক কাজে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা উদ্বুদ্ধকরণের নিমিত্তে আজ রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২২-২০২৩ অর্থ বছরের শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রদান করা হয়। সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবনের সম্মেলন কক্ষে এ পুরস্কার প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় প্রো- ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা, রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ, অর্থ ও হিসাব দপ্তরের পরিচালক জনাব মোঃ নূরুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন রাবিপ্রবি আইটি সেলের সহকারী কম্পিউটার প্রোগ্রামার এ এম শাহেদ আনোয়ার।

 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে, বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার বলেন, শুদ্ধাচার পুরস্কার সবাইকে পেশাগত দায়িত্ব পালনে আরও উৎসাহিত করবে। এ পুরস্কার যারা পেয়েছেন তাদের দায়িত্ব আরো বেড়ে গেলো। তিনি বলেন, অফিসের একজন কর্মচারীর আচার-আচরণে সৎ হতে হবে। সততা  থাকতে হবে এবং আন্তরিক হতে হবে এবং কাজের প্রতি, কর্মস্থলের প্রতি মায়া থাকতে হবে। তাহলে তিনি কর্মক্ষেত্রে অনেক সফল হবেন। সেজন্য তিনি সবাইকে শুদ্ধাচার রক্ষার আহবান জানান।

   

শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রাপ্তরা হলেন:

 

গ্রেড-২ হতে গ্রেড-৯ (শিক্ষক): ড. নিখিল চাকমা, সহকারী অধ্যাপক ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স, জনাব জুয়েল সিকদার, সহকারী অধ্যাপক, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ.

গ্রেড-২ হতে গ্রেড -৯ (কর্মকর্তা): জনাব মাহবুব আরা, সহকারী রেজিস্ট্রার (একাডেমিক), একাডেমিক শাখা, জনাব নিকেতন চাকমা, সহকারী প্রকৌশলী (সিভিল), প্রকৌশল দপ্তর.

গ্রেড-১০-গ্রেড-১৬ (কর্মকর্তা ও কর্মচারী): জনাব মো: রায়হান উদ্দিন প্রশাসনিক কর্মকর্তা,  সংস্থাপন শাখা, জনাব প্রবণ চাকমা, গাড়ি চালক।

 

গ্রেড-১৭ হতে গ্রেড-২০ (কর্মচারী): জনাব রীতি চাকমা, এমএলএসএস, ম্যানেজমেন্ট বিভাগ

জনাব নোবেল চাকমা অফিস সহায়ক,হিসাব দপ্তর। 

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষক, কর্মকর্তা এবং কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

 

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

17 Aug 2023 - 16 Aug 2024

রাবিপ্রবির প্রথম ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. প্রদানেন্দু বিকাশ চাকমার ১ম মৃত্যুবার্ষিকী পালন
বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও পাহাড়ের আলোকবর্তিকা রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. প্রদানেন্দু বিকাশ চাকমার ১ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আজ ১৭ আগস্ট ২০২৩ খ্রিঃ রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবিপ্রবি) আয়োজনে দীপংকর তালুকদার ভবনের সম্মেলন কক্ষে এক স্মরণ সভা আয়োজন করা হয়।
স্মরণ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে রাবিপ্রবি’র মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ ইউসুফ, প্রক্টর ও সিএসই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জুয়েল সিকদার, সিএসই বিভাগের চেয়ারম্যান ও সহকারী অধ্যাপক ধীমান শর্মা, ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স বিভাগের চেয়ারম্যান ও সহকারী অধ্যাপক সুপ্রিয় চাকমা, রাবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারী অধ্যাপক গৌরব চাকমা, পরিকল্পনা ও উন্নয়ন বিভাগের উপ-পরিচালক আবদুল গফুর, রাবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশন এর সভাপতি ও সহকারী রেজিস্ট্রার (একডেমিক) মাহবুব আরা ও কর্মচারী কল্যাণ সমিতির সভাপতি মোঃ কামাল উপস্থিত থেকে বক্তব্য প্রদান করেন। এছাড়াও অন্যান্যরা বক্তব্য প্রদান করেন।
স্মরণ সভায় প্রয়াত ভাইস-চ্যান্সেলর মহোদয়ের শিক্ষা ও কর্মময় জীবনের উপর সংক্ষিপ্ত আলোকপাত করেন অনুষ্ঠানের সঞ্চালক জনসংযোগ দপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ সাইফুল আলম। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ প্রয়াত ভিসি স্যারের বিশ্ববিদ্যালয়ের জীবন ও কর্ম নিয়ে স্মৃতিচারণমূলক আলোচনা উপস্থাপন করেন।
স্মরণ সভায় বক্তারা ভিসি স্যারকে একজন বিনয়ী, নিরহংকারী, পরোপকারী, মানবিক, উদার, দানশীল, ক্রীড়া ও সংস্কৃতিমনা ব্যক্তি হিসেবে তাঁর অবদান তুলে ধরেন। বক্তারা আরো বলেন তিনি সকল শ্রেণী পেশার মানুষের প্রিয়ভাজন ও শ্রদ্ধাভাজন ছিলেন এবং প্রকৃতি ও শিশুদের খুব ভালবাসতেন।
প্রধান অতিথি বক্তব্যে ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার বলেন, “একজন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ হিসেবে প্রয়াত ভিসি স্যারের অনেক অবদান রয়েছে। তিনি না হলে পার্বত্য এলাকায় এ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠায় আলোর মুখ দেখত না। অনেক ত্যাগ-তিতীক্ষা পরিশ্রম করে তিনি এ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত করে গেছেন। তাঁর এ সুকর্মগুলোর জন্য তিনি সবার মাঝে বেঁচে থাকবেন।” তিনি প্রয়াত ভিসি স্যারের স্মৃতি স্মরণীয় করে রাখতে রাবিপ্রবিতে প্রাশাসনিক-একাডেমিক বা হলের যেকোন একটি স্থায়ী ভবনের নাম তাঁর নামে রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। এছাড়া তাঁর নামে একটি স্কলারশীপ (শিক্ষাবৃত্তি) চালু করার জন্য তহবিল গঠনের আশ্বাস দেন। তাঁর স্মরণে একটি স্মরণিকা প্রকাশের জন্য স্মৃতিকথামূলক লেখা প্রদানের জন্য সকলের প্রতি নির্দেশ প্রদান করেন।
স্মরণ সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভাগীয় প্রধানগণ, বিভাগের শিক্ষকগণ, কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ এবং শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠান শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার উপস্থিত সবাইকে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ভাইস-চ্যান্সেলর প্রয়াত প্রফেসর ড. প্রদানেন্দু বিকাশ চাকমার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।
জনসংযোগ দপ্তর
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
তারিখঃ ১৭ আগস্ট ২০২৩ খ্রিঃ

 

news

15 Aug 2023 - 14 Aug 2024

যথাযোগ্য মর্যাদায় রাবিপ্রবিতে জাতীয় শোক দিবস পালন

স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৮তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস ২০২৩ উপলক্ষে রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবিপ্রবি) উদ্যোগে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করা হয়েছে।

দিবসটি উপলক্ষে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে রাবিপ্রবি প্রধান কার্যালয় ও স্থায়ী ক্যাম্পাসে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়।

সকাল ১১ ঘটিকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন-১ হতে শোক র‍্যালী আয়োজন করা হয়, র‍্যালীটি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে দীপংকর তাকুদার ভবনের সামনে এসে শেষ হয়। এরপর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর ম্যুরালে শ্রদ্ধা নিবেদন করে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

 

দিবসটি উপলক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবন এর সম্মেলন কক্ষে “বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ড ও তাঁর স্বপ্নের বাংলাদেশ শীর্ষক এক সেমিনারের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করা হয়। এরপর ১৫ই আগস্ট ঘাতকদের বুলেটের আঘাতে শহাদাত বরণকারী  জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের স্মরণে দাঁড়িয়ে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয় এবং নির্মমভাবে নিহত সকল শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করা হয়। পরে বঙ্গবন্ধুর উপর নির্মিত প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়।

সেমিনারে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করেন। সেমিনারে প্রধান আলোচক হিসেবে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি প্রফেসর মোঃ রুহুল আমিন, আলোচক হিসেবে রাবিপ্রবি’র সিএসই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও প্রক্টর জুয়েল সিকদার এবং সিএসই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও চেয়ারম্যান ধীমান শর্মা বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা। অনুষ্ঠানে সঞ্চালনা করেন রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ ইউসুফ।   

 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার বলেন, “বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশকে স্বাধীন করে দিয়েছেন। তিনি সারাটি জীবন বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্য কিভাবে পরিবর্তন হবে সেজন্য কাজ করেছেন। পৃথিবীর অনেক হত্যাকান্ড হয়েছে কিন্তু কোন হত্যাকান্ডে অবলা নারী, গর্ভবতী নারী,মাসুম শিশু হত্যাকান্ডের টার্গেট ছিলনা! ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ইতিহাসের সবচেয়ে নির্মম ও জঘন্যতম হত্যাকান্ড গুলোকে ছাপিয়ে গেছে! বঙ্গবন্ধুর রক্ত যাতে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে না পারে এজন্য খুনীরা বেছে বেছে তাঁর পুরো পরিবারকে হত্যা করেছিল!

প্রধান আলোচক হিসেবে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি প্রফেসর মোঃ রুহুল আমিন বলেন, বঙ্গবন্ধু এ দেশকে ভৌগলিক মুক্তি এনে দিয়েছিলেন, তিনি ছিলেন এ জাতির স্বপ্নদ্রষ্টা এবং স্বাধীনতার রূপকার। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট নৃশংসভাবে হত্যা করে খুনিরা তাঁর দৈহিক সত্ত্বাকে কেড়ে নিয়েছে কিন্তু তাঁর স্বপ্নকে মারতে পারেননি। তিনি বাংলাদেশের মানুষের ধমনী ও হৃদয়ের স্পন্দন।  

সভাপতির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন একজন অসাধারণ নেতা। দেশ ও দেশের মানুষের প্রতি অপরিসীম ভালোবাসা তাঁর রাজনীতি ও জীবন আদর্শকে অর্থবহ করে তুলেছিল। কিন্তু এদেশের কতিপয় বিপদগামী ষড়যন্ত্রকারীরা ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারকে বুলেটের আঘাতে নির্মমভাবে হত্যা করে এদেশ থেকে বঙ্গবন্ধুর নাম মুছে দিতে চেয়েছিল। অথচ তারা জানেনা বঙ্গবন্ধু মানে বাংলাদেশ।

 

দিবসটি উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যানগণ, শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

 

13 Aug 2023 - 31 Aug 2023

ডিজিটাল নথির যুগে প্রবেশ রাবিপ্রবি'র

স্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে একটি আধুনিক ও সেবামূলক দক্ষ প্রশাসন গড়ে তুলতে দাপ্তরিক নথি ব্যবস্থাপনা ও রেকর্ড সংরক্ষণে দেশের অন্যান্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে ডি-নথি কার্যক্রম বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ২য় পর্যায়ে ডি-নথি (ডিজিটাল নথি) ব্যবস্থাপনার যুগে প্রবেশ করলো রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

আজ রোববার (১৩ আগস্ট) বিকাল ৩:০০ ঘটিকায় ইউজিসি অডিটোরিয়ামে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের আয়োজনে দেশের ১০ টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ডি নথি কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী ডা: দিপু মনি, এমপি।  

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাননীয় শিক্ষা উপমন্ত্রী জনাব মহিবুল হাসান চৌধুরী, এমপি। এছাড়া আলোচকবৃন্দ হিসেবে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের মাননীয় সদস্য প্রফেসর ড. মোঃ সাজ্জাদ হোসেন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. নূরুল আলম  উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের মাননীয় চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী শহীদুল্লাহ।  স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের মাননীয় সচিব জনাব  ফেরদৌস জামান। বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন ভবনে রাবিপ্রবির মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী বরাবর ধন্যবাদ জ্ঞাপন পত্র জারীর মাধ্যমে ডি-নথি কার্যক্রমের সূচনা করেন। উক্ত সময় মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর সহিত বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ ইউসুফ, প্রক্টর ও সিএসই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জনাব জুয়েল সিকদার, পিএস টু ভিসি (সহকারী রেজিস্ট্রার)  জনাব নৃপেন চাকমা এবং রাবিপ্রবি সহকারী কম্পিউটার প্রোগ্রামার ও  ডি-নথি দপ্তরের এডমিন এবং টিওটি প্রশিক্ষক জনাব এ এম শাহেদ আনোয়ার এবং জনাব সেতু চাকমা, সহকারী রেজিস্ট্রার (এস্টেট) ও এপিএ ফোকাল পয়েন্ট উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া রাবিপ্রবিসহ দেশের ৯ টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় অনলাইন জুম প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে ডি-নথি কার্যক্রম উদ্বোধনে নিজ নিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে যুক্ত হন। বিকাল ৩:০০ ঘটিকায় রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় দীপংকর তালুকদার ভবনের সম্মেলন কক্ষে ডি-নথি কার্যক্রম উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অনলাইন জুম প্ল্যাটফর্মে বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থ ও হিসাব শাখার পরিচালক মো. নূরুজ্জামানসহ বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যানবৃন্দ, শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।

ডি-নথি যুগে প্রবেশ করা ১০ টি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে, রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়,  খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়,  জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়,  জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়,  যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় এবং বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অফ প্রফেশনালস।

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

 

01 Jan 1970 - 01 Jan 1970

যথাযোগ্য মর্যাদায় রাবিপ্রবি’তে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এঁর জন্মদিন পালিত

যথাযোগ্য মর্যাদায় রাবিপ্রবি’তে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এঁর জন্মদিন পালিত

আজ মঙ্গলবার রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এঁর ৯৩তম জন্মদিন যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করা হয়।  

দিবসটি উপলক্ষে সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবনের সভা কক্ষে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। সভার শুরুতে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের কালো রাতে বঙ্গবন্ধু, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এবং মুজিব পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গে ঘাতকের বুলেটে নির্মমভাবে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য এক মিনিট নিরাবতা পালন করা হয়।

সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ, প্রক্টর জনাব জুয়েল সিকদার, অর্থ ও হিসাব দপ্তরের পরিচালক জনাব মো. নূরুজ্জামান এবং রাবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশন এর সভাপতি জনাব মাহবুব আরা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা। এছাড়া বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যানগণ এ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন রাবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জনাব গৌরব চাকমা   

 

মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর তাঁর বক্তব্যে বলেন, “বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা ছিলেন এক মহিয়সী নারী। তিনি সেসময় বঙ্গবন্ধুর সংগ্রামী জীবনে নিজের সংসার ও সন্তানদের মানুষ করার পাশাপাশি সংগঠনের নেতা-কর্মী ও আত্মীয় স্বজনের প্রতি সবসময় মনোযোগ রাখতেন। অনেক ত্যাগ-তিতীক্ষা সহ্য করেছেন।  শেখ মুজিবের বঙ্গবন্ধু হয়ে উঠার পেছনেও বঙ্গমাতার অনেক অবদান রয়েছে। স্বামী বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ছায়ার মত অনুসরণ করে বেগম মুজিব জীবনে অনেক ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করেছেন। এজন্য তাকে অনেক কষ্ট-দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। এছাড়া স্বাধীনতা আন্দোলন ও মুক্তিসংগ্রামসহ বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ক্ষেত্রে বঙ্গমাতার অসামান্য অবদান রয়েছে।

 

অনুষ্ঠান শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার উপস্থিত সবাইকে নিয়ে বঙ্গমাতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

 

এ সংক্রান্ত প্রেস বিজ্ঞপ্তি আপনার বহুল প্রচারিত সংবাদ মাধ্যমে প্রচারের জন্য বিনীত অনুরোধ রইল।  

 

 

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

 

24 Jul 2023 - 01 Jul 2024

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়কে প্রযুক্তিগত উন্নয়ন ও আধুনিকীকরণের মাধ্যমে ডিজিটাল ও স্মার্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তরের লক্ষ্যে আইসিটি মন্ত্রণালয় সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়কে প্রযুক্তিগত উন্নয়ন ও আধুনিকীকরণের মাধ্যমে ডিজিটাল ও স্মার্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তরের লক্ষ্যে আইসিটি মন্ত্রণালয় সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে------ তথ্য,যোগাযোগ ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জনাব জুনাইদ আহমেদ পলক

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার আজ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য,যোগাযোগ ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জনাব জুনাইদ আহমেদ পলকের সাথে তাঁর দপ্তরে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। এসময় রাবিপ্রবি'র সিএসই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও প্রক্টর জনাব জুয়েল সিকদার এবং ভাইস চ্যান্সেলর মহোদয়ের একান্ত সচিব জনাব নৃপেন চাকমা উপস্থিত ছিলেন। সৌজন্য সাক্ষাৎকালে মাননীয় প্রতিমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা পার্বত্য চট্টগ্রামের শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষার কথা চিন্তা করে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলায় এ প্রতিষ্ঠান স্থাপন করেছেন। রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়কে প্রযুক্তিগত উন্নয়ন ও আধুনিকীকরণের মাধ্যমে ডিজিটাল ও স্মার্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তরের লক্ষ্যে আইসিটি মন্ত্রণালয় সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে বলে আশ্বাস প্রদান করেন।

 

মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর মহোদয়ের আবেদনের প্রেক্ষিতে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫টি ডিপার্টমেন্টের জন্য ৫টি শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব, দুটি হলের জন্য দুটি শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব এবং ১টি স্মার্ট ক্লাস রুম স্থাপনের প্রতিশ্রুতি দেন। ভবিষ্যৎ দক্ষ মানব সম্পদ তৈরি করতে ও স্মার্ট অর্থনীতির জন্য স্মার্ট জনবল প্রয়োজন। এক্ষেত্রে চারটি সম্মুখ সারির প্রযুক্তিতে শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষিত হয়ে দক্ষ হতে হবে। তিনি সেই চারটি সম্মুখ সারির প্রযুক্তি বিষয়ে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই), রোবটিক্স, মাইক্রো চিপস ডিজাইনিং ও সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ে ছয় মাসের ট্রেড কোর্স চালুর বিষয়ে উদ্যোগ নেওয়ার কথা জানান।

 

এসময় মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর মহোদয় তথ্য, যোগাযোগ ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মহোদয়কে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের এই বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক উন্নয়নে সহযোগীতা কামনা করেন।

 

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

 

20 Jun 2023 - 20 Jun 2023

রাবিপ্রবিতে ম্যানেজমেন্ট বিভাগের ম্যানেজমেন্ট বিজনেজ সোসাইটির (বিএমএস) আয়োজনে "Workshop on Study In Abroad" শীর্ষক এক সেমিনার আয়োজন
২০ জুন ২০২৩ রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট বিভাগের ম্যানেজমেন্ট বিজনেজ সোসাইটির (বিএমএস) আয়োজনে "Workshop on Higher Study In Abroad" শীর্ষক এক সেমিনার আয়োজন করা হয়। সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় প্রো- ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা উপস্থিত ছিলেন। কী-নোট স্পীকার হিসেবে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ রুহুল আমিন উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রাবিপ্রবি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান জনাব নেইংম্রাচিং চৌধুরী ননী। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন রাবিপ্রবি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জনাব সাজ্জাদ মাহমুদ।
এছাড়া অনুষ্ঠানে বিদেশে উচ্চা শিক্ষায় স্কলরাশীপ নিয়ে পড়াশুনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সিএসই বিভাগের চেয়ারম্যান জনাব ধীমান শর্মা, প্রক্টর ও সিএসই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জনাব জুয়েল সিকদার, ট্যুরিজম এন্ড হসপিতালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান ( ভারপ্রাপ্ত) জনাব খোকনেশ্বর ত্রিপুরা, ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স বিভাগের চেয়ারম্যান ড. সুপ্রিয় চাকমা এবং প্রভাষক জনাব সৌরভ দত্ত ।
অনুষ্ঠানে বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী, ম্যানেজমেন্ট বিজনেজ সোসাইটির সদস্যগণ এবং বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

21 Jun 2023 - 31 Aug 2023

রাবিপ্রবিতে ২০২২-২০২৩ অর্থ বছরের শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রদান

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

 

দাপ্তরিক কাজে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা উদ্বুদ্ধকরণের নিমিত্তে আজ রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২২-২০২৩ অর্থ বছরের শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রদান করা হয়। সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবনের সম্মেলন কক্ষে এ পুরস্কার প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় প্রো- ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা, রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ, অর্থ ও হিসাব দপ্তরের পরিচালক জনাব মোঃ নূরুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন রাবিপ্রবি আইটি সেলের সহকারী কম্পিউটার প্রোগ্রামার এ এম শাহেদ আনোয়ার।

 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে, বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার বলেন, শুদ্ধাচার পুরস্কার সবাইকে পেশাগত দায়িত্ব পালনে আরও উৎসাহিত করবে। এ পুরস্কার যারা পেয়েছেন তাদের দায়িত্ব আরো বেড়ে গেলো। তিনি বলেন, অফিসের একজন কর্মচারীর আচার-আচরণে সৎ হতে হবে। সততা থাকতে হবে এবং আন্তরিক হতে হবে  এবং কাজের প্রতি, কর্মস্থলের প্রতি মায়া থাকতে হবে। তাহলে তিনি কর্মক্ষেত্রে অনেক সফল হবেন। সেজন্য তিনি সবাইকে শুদ্ধাচার রক্ষার আহবান জানান।   

 

শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রাপ্তরা হলেন:

গ্রেড-২ হতে গ্রেড-৯ (শিক্ষক): ড. নিখিল চাকমা, সহকারী অধ্যাপক ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স, জনাব জুয়েল সিকদার, সহকারী অধ্যাপক, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ.

গ্রেড-২ হতে গ্রেড -৯ (কর্মকর্তা): জনাব মাহবুব আরা, সহকারী রেজিস্ট্রার (একাডেমিক), একাডেমিক শাখা, জনাব নিকেতন চাকমা, সহকারী প্রকৌশলী (সিভিল), প্রকৌশল দপ্তর.

গ্রেড-১০-গ্রেড-১৬ (কর্মকর্তা ও কর্মচারী): জনাব মো: রায়হান উদ্দিন প্রশাসনিক কর্মকর্তা,  সংস্থাপন শাখা, জনাব প্রবণ চাকমা, গাড়ি চালক।

 

গ্রেড-১৭ হতে গ্রেড-২০ (কর্মচারী): জনাব রীতি চাকমা, এমএলএসএস, ম্যানেজমেন্ট বিভাগ

জনাব নোবেল চাকমা অফিস সহায়ক,হিসাব দপ্তর।  

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষক, কর্মকর্তা এবং কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

 

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

 

15 Jul 2023 - 31 Jul 2023

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রাবিপ্রবি) দিবস উদযাপন

নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে উদযাপিত হয়েছে রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রাবিপ্রবি) দিবস।

দিবসটি উপলক্ষে সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন-১ হতে এক আনন্দ শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন স্থান প্রদক্ষিণ করে দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবনের সামনে এসে শেষ হয়। দিবসটি উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার এবং প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা বেলুন উড়িয়ে “বিশ্ববিদ্যালয় দিবস”-এর শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

 

এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ, প্রক্টর জনাব জুয়েল সিকদার, বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান, শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীগণ উপস্থিত ছিলেন। পরে দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবনের সম্মেলন কক্ষে দিবসটি উপলক্ষে কেক কাটা হয়।

 

অনুষ্ঠানে মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর বলেন, নানা সমস্যা ও প্রতিকূলতা অতিক্রম করে আজ রাবিপ্রবি'র কার্যক্রম এতদূর এসেছে। স্বপ্ন দেখি একদিন সব সীমাবদ্ধতা অতিক্রম করে দেশে ও সারা বিশ্বে অনেক সুনাম বয়ে আনবে। সেজন্য তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীদের মিলেমিশে একসাথে এ বিশ্ববিদ্যালয়কে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার আহবান জানান।

 

জনসংযোগ দপ্তর
রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

 

11 Jul 2023 - 18 Jul 2023

রাবিপ্রবিতে ৩ দিন ব্যাপী "ডি-নথির ব্যবহার ও বাস্তবায়ন বিষয়ক উন্নয়ন প্রশিক্ষণ উদ্বোধন

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক,কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের "ডি-নথির ব্যবহার ও  বাস্তবায়ন বিষয়ক উন্নয়ন ৩ দিন ব্যাপী প্রশিক্ষণ আজ সকাল ১০:০০ ঘটিকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবনের সম্মেলন কক্ষে উদ্বোধন করা হয়। অনুষ্ঠানে রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার মহোদয়ের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে অনলাইনে যুক্ত ছিলেন প্রফেসর ড. মো: সাজ্জাদ হোসেন, সদস্য, বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন, এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে রাবিপ্রবি মাননীয় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা,অনলাইনে যুক্ত ছিলেন ড. ফেরদৌস জামান, সচিব, বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন এবং জনাব মো: সুলতান মাহমুদ ভুইয়া, পরিচালক, আইএমসিটি বিভাগ, বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ, কম্পিউটাড় সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান জনাব ধীমান শর্মা উপস্থিত ছিলেন।

 

বক্তারা বলেন, স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে ডিজিটাল প্লাটফর্মের কোন বিকল্প নেই। সেজন্য কর্মক্ষেত্রে আরো দ্রুত গতিশীলতা আনয়নের জন্য ডি-নথি ব্যবহার আবশ্যক। ডি-নথির এ প্রক্রিয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ে ফাইলের কাজ ডিজিটাল পদ্ধতি অনুসরণ করে কাজ করা যাবে। ফলে যে কেউ যেকোনো জায়গা থেকে যেকোনো সময় ফাইল অনুমোদন করতে পারবেন। এতে তাদের সময়ের ব্যয় কমবে। এছাড়া কাগজ সাশ্রয়, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার জায়গাটিও নিশ্চিত হবে। বাড়বে প্রশাসন ও একাডেমিক ক্ষেত্রে গতিশীলতা ।

 

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন রাবিপ্রবি এপিএ ফোকাল পয়েন্ট ও সহকারী রেজিস্টার (এস্টেট) জনাব সেতু চাকমা৷

 

উল্লেখ্য, ডি-নথির ব্যবহার ও বাস্তবায়ন বিষয়ক উন্নয়ন ৩ দিন ব্যাপী প্রশিক্ষণে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০ জন শিক্ষক,কর্মকর্তা ও কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।  আজ ১১ জুলাই ২০২৩ তারিখ থেকে আগামী ১৩ জুলাই ২০২৩ তারিখ পর্যন্ত এ প্রশিক্ষণ কার্যক্রম চলবে।

 

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

 

news

26 Jun 2023 - 30 Jun 2023

রাবিপ্রবি সর্বোচ্চ নীতি-নির্ধারণী পর্ষদ রিজেন্ট বোর্ড এর বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত

 

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবিপ্রবি) সর্বোচ্চ নীতি-নির্ধারণী পর্ষদ রিজেন্ট বোর্ড এর বিশেষ সভা আজ সোমবার ২৬ জুন, ২০২৩ সকাল ১১:০০ ঘটিকায় রাঙ্গামাটি পর্যটন মোটেল সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে।   

রাবিপ্রবি রিজেন্ট বোর্ডের বিশেষ সভায় রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর এবং রিজেন্ট বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার সভাপতিত্ব করেন।

 

রাবিপ্রবির রেজিস্ট্রার  জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ এর সঞ্চালনায় রিজেন্ট বোর্ডের সভাপতির অনুমতিক্রমে সভা কার্যক্রম শুরু হয়। সভায় শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত, পবিত্র গীতা পাঠ, পবিত্র ত্রিপিটক এবং পবিত্র বাইবেল থেকে ধর্মীয় বাণী পাঠ করা হয়। পরে জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা হয় এবং রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ভাইস-চ্যান্সেলর প্রয়াত প্রফেসর ড. প্রদানেন্দু বিকাশ চাকমা এর বিদেহী আত্মার শান্তি কামনায় এক মিনিট নিরাবতা পালন করা হয়। এরপর মাননীয় ভাইস-চ্যান্সেলর এবং রিজেন্ট বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার সভায় উপস্থিত সকল সদস্যকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন।  

 

সভার শুরুতে ভাইস চ্যান্সেলর  সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি ,জাতির পিতা ও স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের মহান স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধে আত্মদানকারী বীর শহীদদের, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিবসহ ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টে শাহাদাত বরণকারী বঙ্গবন্ধু পরিবারের সকল সদস্যকে স্মরণ করেন।

 

“রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নের একাংশ। তাঁর ঐকান্তিক প্রচেষ্টা, সদিচ্ছা ও এখানকার জনগণের প্রতি অকৃত্রিম ভালোবাসা না থাকলে এই বিশ্ববিদ্যালয় আলোর মুখ দেখতো না”- সভায় বক্তব্যে ভাইস চ্যান্সেলর একথা বলেন । সেই সাথে তিনি রাবিপ্রবি’তে ভাইস চ্যান্সেলর হিসেবে নিয়োগ পাওয়ায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মহামান্য রাষ্ট্রপতি, সেই সাথে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনাকে অনেক কৃতজ্ঞতা জানান।

সেই সাথে সবসময় দিক নির্দেশনা ও সুপরামর্শ দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক কার্যক্রম পরিচালনায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী ডা: দীপু মনি এম.পি মহোদয় ও শিক্ষা উপমন্ত্রী জনাব ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল এম.পি মহোদয়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

 

তিনি আরো বলেন, “সৎ, সুদক্ষ, সুযোগ্য, বিজ্ঞান মনস্ক, সংস্কৃতিবান, মানবিক গুণ সম্পন্ন আলোকিত মানব সম্পদ উৎপাদন করাই হচ্ছে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের লক্ষ্য। এ লক্ষ্য অর্জনে এবং এগিয়ে চলার নিরন্তর প্রয়াসে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে। তিনি আশা করেন আগামী দিনগুলোতে  দেশ ও জাতির উন্নয়নে এ বিশ্ববিদ্যালয় অকল্পনীয় অবদান রাখবে। ”

 

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ এর সঞ্চালনায় রিজেন্ট বোর্ডের আলোচ্যসূচী অনুযায়ী সভার কার্যক্রম শুরু হয়। আলোচনাক্রমে আপগ্রেডেশন সংক্রান্ত বাছাই বোর্ডের সুপারিশমালা, বিভিন্ন নীতিমালা প্রণয়ন, নির্ধারণী বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারীদের চাকুরী সংক্রান্ত নিয়োগ-স্থায়ীকরণ ও পর্যায়োন্নয়নসহ বিবিধ নীতিমালা অনুমোদন প্রদান করা হয়।

 

রিজেন্ট বোর্ডের সভায় সম্মানিত সদস্য রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলার মাননীয় সাংসদ জনাব দীপংকর তালুকদার এম.পি, সংসদীয় আসন ২৯৩ এর মাননীয় সাংসদ মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী এম.পি, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট বিভাগের অধ্যাপক প্রফেসর ড. শামীমা ফেরদৌসী, রাবিপ্রবি কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জনাব জুয়েল সিকদার, রাবিপ্রবি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সপ্তর্ষি চাকমা, রাবিপ্রবি ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. সুপ্রিয় চাকমা,রাঙ্গামাটি সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর তুষার কান্তি বড়ুয়া এবং রাঙ্গামাটি সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মোহাম্মদ এনামুল হক খোন্দকার উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও অনলাইন প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে যুক্ত ছিলেন রাবিপ্রবি রিজেন্ট বোর্ডের সদস্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (মাধ্যমিক-২) জনাব আবদুন নূর মুহম্মদ আল ফিরোজ, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের যুগ্ম সচিব (কলেজ-২) অতিরিক্ত দায়িত্ব,জনাব সৈয়দা নওয়ারা জাহান, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বোর্ড, চট্টগ্রাম এর চেয়ারম্যান প্রফেসর মুস্তফা কামরুল আখতার এবং  চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম।

 

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ও একাডেমিক কার্যক্রমকে গতিশীল করার লক্ষ্যে নীতিনির্ধারণী সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে আগামীতে রিজেন্ট বোর্ডের সদস্যবৃন্দের সর্বাত্মক সহযোগিতা পাওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করে এবং সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে রিজেন্ট বোর্ডের সভাপতি সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

 

জনসংযোগ দপ্তর

রাবিপ্রবি।

 

news

07 Jun 2023 - 01 Jan 1970

রাবিপ্রবিতে ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস পালন

আজ বুধবার যথাযোগ্য মর্যাদায় রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস পালিত হয়। দিবসটি উপলক্ষে সকালে দীপংকর তালুকদার ভবনের সম্মেলন কক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা, সিএসই বিভাগের চেয়ারম্যান জনাব ধীমান শর্মা, ফরেস্ট্রি এন্ড এনভায়রনমেন্টাল সাইন্স বিভাগের চেয়ারম্যান ড. সুপ্রিয় চাকমা, অর্থ ও হিসাব বিভাগের পরিচালক মোঃ নুরুজ্জামান এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ জালাল আহমেদ । এছাড়া রাবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশন্স এর সভাপতি সহকারী রেজিস্ট্রার (একাডেমিক) জনাব মাহবুব আরা, কর্মচারী কল্যাণ সমিতির সভাপতি সিনিয়র মেডিকেল এসিস্ট্যান্স জনাব মোঃ কামাল হোসেন বক্তব্য প্রদান করেন।    

 

বক্তব্যের শুরুতেই উপাচার্য মহোদয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কথার উদ্বৃতি দিয়ে বলেন " বাবা বলতেন, ছয় দফা মানেই একদফা আর তা হলো - স্বাধীনতা" । ৭ জুন ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবস। ১৯৬৬ সালের এই দিনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ঘোষিত বাঙালি জাতির মুক্তির সনদ ৬ দফা দাবির পক্ষে দেশব্যাপী তীব্র গণআন্দোলনের সূচনা হয়। এই দিনে আওয়ামী লীগের ডাকা হরতালে টঙ্গি, ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জে তৎকালীন পুলিশ ও ইপিআর-এর গুলিতে ১১ জন বাঙালি শহীদ হন। এরপর থেকেই বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে আপোসহীন সংগ্রামের ধারায় ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানের দিকে এগিয়ে যায় পরাধীন বাঙালি জাতি। এরই ধারাবাহিকতায় বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ১৯৭১ সালে সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অভ্যুদয় ঘটে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের।

 

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৬৬ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি তাসখন্দ চুক্তিকে কেন্দ্র করে লাহোরে অনুষ্ঠিত সম্মেলনের সাবজেক্ট কমিটিতে ৬-দফা উত্থাপন করেন এবং পরের দিন সম্মেলনের আলোচ্য সূচিতে যাতে এটি স্থান পায় সে ব্যাপারে সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ করেন।

 

কিন্তু পরিতাপের বিষয় এই সম্মেলনে বঙ্গবন্ধুর এ দাবির প্রতি আয়োজক পক্ষ গুরুত্ব প্রদান করেনি। তারা এ দাবি প্রত্যাখ্যান করে। প্রতিবাদে বঙ্গবন্ধু সম্মেলনে যোগ না দিয়ে লাহোরে অবস্থানকালেই ৬-দফা উত্থাপন করেন। এ নিয়ে তৎকালীন পশ্চিম পাকিস্তানের বিভিন্ন খবরের কাগজে বঙ্গবন্ধুকে বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা বলে চিহ্নিত করা হয়। পরে ঢাকায় ফিরে বঙ্গবন্ধু ১৩ মার্চ ৬-দফা এবং এ ব্যাপারে দলের অন্যান্য বিস্তারিত কর্মসূচি আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদে অনুমোদন করিয়ে নেন।

 

বক্তাগণ তাঁদের বক্তব্যে বলেন, ৬-দফার মূল বক্তব্য ছিল, প্রতিরক্ষা ও পররাষ্ট্র বিষয় ছাড়া সকল ক্ষমতা প্রাদেশিক সরকারের হাতে থাকবে। পূর্ববাংলা ও পশ্চিম পাকিস্তানে দু’টি পৃথক ও সহজ বিনিময়যোগ্য মুদ্রা থাকবে। সরকারের কর, শুল্ক ধার্য ও আদায় করার দায়িত্ব প্রাদেশিক সরকারের হাতে থাকাসহ দুই অঞ্চলের অর্জিত বৈদেশিক মুদ্রার আলাদা হিসাব থাকবে এবং পূর্ববাংলার প্রতিরক্ষা ঝুঁকি কমানোর জন্য এখানে আধা-সামরিক বাহিনী গঠন ও নৌবাহিনীর সদর দফতর স্থাপন করতে হবে।

বঙ্গবন্ধু ঘোষিত ৬-দফা দাবির মুখে পাকিস্তানের তৎকালীন সামরিক শাসক আইয়ুব খান বিচলিত হয়ে পড়েন। তিনি হুমকি দিয়ে বলেন, ৬-দফা নিয়ে বাড়াবাড়ি করলে অস্ত্রের ভাষায় উত্তর দেয়া হবে।

এদিকে, ৬-দফা কর্মসূচি জনগণের মাঝে পৌঁছে দেয়ার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ সমগ্র পূর্ববাংলা সফর করেন এবং ৬ দফাকে বাঙালির বাঁচার দাবি হিসেবে অভিহিত করেন। ফলে, শাসকগোষ্ঠী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ অন্যান্য নেতাকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করে। যশোর, ময়মনসিংহ ও সিলেটসহ অন্যান্য কয়েকটি স্থানে ৬ দফার পক্ষে প্রচারকালে বঙ্গবন্ধু গ্রেফতার হন। পরবর্তী সময়ে ঐতিহাসিক ৬ দফাভিত্তিক নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলনই ধাপে ধাপে বাঙালির স্বাধীনতা সংগ্রামে পরিণত হয়। এ দাবির সপক্ষে বাঙালি জাতির সর্বাত্মক রায় ঘোষিত হয় ১৯৭০ সালের ঐতিহাসিক সাধারণ নির্বাচনের মধ্যদিয়ে। ওই নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে সংখ্যাগরিষ্ঠ আসনে বাঙালিরা বিজয়ী করে।

অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধুর দলকে জনগণ বিজয়ী করলেও স্বৈরাচারী পাকিস্তানের শাসকরা বিজয়ী দলকে সরকার গঠন করতে না দিলে আবারো বঙ্গবন্ধু জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে স্বাধীনতার পক্ষে আন্দোলন শুরু করেন।

 

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

 

news

03 Jun 2023 - 10 Jun 2023

উৎসব মুখর পরিবেশে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে GST গুচ্ছভুক্ত A ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

আজ ৩ জুন ২০২৩ তারিখ রোজ শনিবার রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের তত্ত্বাবধানে  GST গুচ্ছভুক্ত A ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা দুপুর ১২:০০ টা থেকে ১:০০টা পর্যন্ত সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্র ও ৬ টি উপ-কেন্দ্রে A ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। সর্বমোট ৭,৫২০ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৬,৬৬৯ জন উপস্থিত, অনুপস্থিত ছিলেন ৮৫১ জন এবং উপস্থিতির হার ৮৮.৬৮%।      

 

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার এবং প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন এবং দায়িত্বশীলদের সাথে মত বিনিময় করেন। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ, প্রক্টর জনাব জুয়েল সিকদার এবং রাবিপ্রবি’র GST A ইউনিটের ফোকাল পয়েন্ট ড. নিখিল চাকমা বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন।

 

A ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড.সেলিনা আখতার সকল শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারী, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন,উপকেন্দ্র প্রধান, উপ-কেন্দ্র সমন্বয়ক,স্বেচ্ছাসেবক, মিডিয়া কর্মী, পরীক্ষা সংশ্লিষ্ট কাজে যারা সহযোগিতা করেছেন এবং যারা দূর দূরান্ত থেকে কষ্ট করে এসে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছেন,পরীক্ষার্থীদের সহযোগিতা করেছেন তাদের সকলের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

 

উল্লেখ্য, GST গুচ্ছভুক্ত ২০২২ এর C ইউনিট এর ভর্তি পরীক্ষা দেশব্যাপী ১৯ টি বিশ্ববিদ্যালয়ে (কেন্দ্রে) একযোগে অনুষ্ঠিত হয়েছে । গত ২০ মে ২০২৩ এ গুচ্ছভুক্ত ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়।

 

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

news

01 Jan 1970 - 01 Jan 1970

উৎসবমুখর পরিবেশে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে GST গুচ্ছভুক্ত C ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

আজ ২৭ মে ২০২৩ তারিখ রোজ শনিবার রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের তত্ত্বাবধানে  GST গুচ্ছভুক্ত C ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা দুপুর ১২:০০ টা থেকে ১:০০টা পর্যন্ত সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্র ও ১ টি উপ-কেন্দ্রে C ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। সর্বমোট ৩,০৮৮ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ২,৮৪০ জন উপস্থিত, অনুপস্থিত ছিলেন ২৪৮ জন এবং উপস্থিতির হার ৯১.৯৭%।     

 

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার এবং প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন এবং দায়িত্বশীলদের সাথে মত বিনিময় করেন। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ, প্রক্টর জনাব জুয়েল সিকদার এবং রাবিপ্রবি’র GST ফোকাল পয়েন্ট ড. নিখিল চাকমা বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন।

 

C ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড.সেলিনা আখতার সকল শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারী, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন,উপকেন্দ্র প্রধান, উপ-কেন্দ্র সমন্বয়ক,স্বেচ্ছাসেবক, মিডিয়া কর্মী, পরীক্ষা সংশ্লিষ্ট কাজে যারা সহযোগিতা করেছেন এবং যারা দূর দূরান্ত থেকে কষ্ট করে এসে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছেন,পরীক্ষার্থীদের সহযোগিতা করেছেন তাদের সকলের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

 

উল্লেখ্য, GST গুচ্ছভুক্ত ২০২২ এর C ইউনিট এর ভর্তি পরীক্ষা দেশব্যাপী ১৯ টি বিশ্ববিদ্যালয়ে (কেন্দ্রে) একযোগে অনুষ্ঠিত হয়েছে । আগামী ৩ জুন ২০২৩ খ্রিঃ A ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে এ গুচ্ছভুক্ত ভর্তি পরীক্ষা শেষ হবে।

 

জনসংযোগ দপ্তর

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

 

news

23 May 2023 - 23 May 2023

রাবিপ্রবিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর “জুলিও কুরি” শান্তি পদক প্রাপ্তির ৫০ বছর পুর্তি উদযাপন

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর “জুলিও কুরি” শান্তি পদক প্রাপ্তির ৫০ বছর পুর্তি আজ মঙ্গলবার রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে উদযাপন করা হয়। দিবসটি উপলক্ষে সকাল ১০:৩০ ঘটিকায় এক আনন্দ র‍্যালী বের করা হয়। র‍্যালীটি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন-১ থেকে শুরু হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করে দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবনের সামনে এসে শেষ হয়।

 

এরপর দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবনের সম্মেলন কক্ষে দিবসটি উপলক্ষে এক আলোচনা সভা করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে আসন অলংকৃত করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা, প্রক্টর জনাব জুয়েল সিকদার বক্তব্য প্রদান করেন। এছাড়া সিএসই বিভাগের চেয়ারম্যান ও সহকারী অধ্যাপক জনাব ধীমান শর্মা, রাবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশন এর সভাপতি ও সহকারী রেজিস্ট্রার (একাডেমিক) জনাব মাহবুব আরা এবং রাবিপ্রবি কর্মচারী কল্যাণ সমিতি সভাপতি জনাব কামাল হোসেন বক্তব্য রাখেন।

 

প্রধান অতিথির মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার বলেন, জাতির পিতা ১৯৭১ সালে বাঙালি জাতির মুক্তি আন্দোলনের জন্য যে মহান লড়াই সংগ্রাম করেছেন তা ইতিহাসে চিরস্বরনীয় হয়ে থাকবে। তিনি এ দেশের আপামর মেহনতি মানুষের জন্য অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছেন। তিনি নিপীড়িত, নিষ্পেষিত, শোষিত, বঞ্চিত বাংলার মানুষের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে ডাক দিয়েছিলেন স্বাধীনতা সংগ্রামের। তাছাড়া তিনি দেশ পরিচালনায় সারা বিশ্বে অনেক সুনাম অর্জন করেন এবং বিশ্বমানবতায় অসামান্য অবদান রাখায় ১৯৭২ সালে ২৩ মে জুলিও কুরি সম্মানে ভুষিত করা হন । এ গৌরব আমাদের সবার ।   

 

জানা যায়, নোবেলজয়ী ফরাসি পদার্থবিজ্ঞানী জঁ ফ্রেডেরিক জুলিও কুরির নামে ১৯৫৯ সালে বিশ্ব শান্তি পরিষদ এ জুলিও কুরি পদক চালু করেন। ১৯৭১ সালে বাঙালি জাতির মুক্তি আন্দোলন, বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠায় বঙ্গবন্ধুর অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ বিশ্ব শান্তি পরিষদ ১৯৭২ সালের ১০ অক্টোবর জুলিও কুরি পদকের জন্য জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাম ঘোষণা করা হয়। এরপর ১৯৭৩ সালের ২৩ মে বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত এশীয় শান্তি সম্মেলনে এক ঝাঁকজমকপূর্ণ  অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুকে ‘জুলিও কুরি’ পদক প্রদান করেন পরিষদের তৎকালীন সেক্রেটারি জেনারেল রমেশচন্দ্র। বলাবাহুল্য যে, স্বাধীন বাংলাদেশে কোনো রাষ্ট্রনেতার এটিই ছিল প্রথম আন্তর্জাতিক পদক লাভ।     

 

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন রাবিপ্রবি কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রভাষক জনাব ঋষিতা চাকমা।

অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান, শিক্ষক, বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।

news

01 Jan 1970 - 01 Jan 1970

রাবিপ্রবি তে বর্ণিল আয়োজনে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপিত
মহাসমারোহে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা ও নানান আয়োজনে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বাধীনতা দিবস ২০২৩ উদযাপিত হয়েছে। আজ ২৬ মার্চ ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ তারিখ সকাল ৯:০০ ঘটিকায় রাবিপ্রবির মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার ও উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থায়ীভাবে নির্মিত স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এর পরপরই রাবিপ্রবির বিভিন্ন বিভাগ,শিক্ষক সমিতি,কর্মকর্তা এসোসিয়েশন, কর্মচারী কল্যাণ সমিতির পক্ষ থেকে পুস্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে সমবেত কন্ঠে জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা হয়। এদিকে সকাল ১০:০০ ঘটিকায় দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবনের সম্মেলন কক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা। মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।
মাননীয় উপাচার্য তাঁর বক্তব্যের শুরুতে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। একইসাথে ’৫২ এর ভাষা আন্দোলনের শহীদ, ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে ত্রিশলক্ষ শহীদ এবং দেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনে সকল শহীদদের তিনি শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন এবং ১৯৭৫ এর ১৫ আগস্ট নির্মম ও নিষ্ঠুরতম হত্যাকান্ডের শিকার হয়ে নিহত বঙ্গবন্ধু পরিবারের সদস্যসহ সকল শহীদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধে নির্যাতিত দু লক্ষ মা বোনের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করেন।
তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু এ দেশের মানুষকে স্বাধীনতা ও মুক্তির স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন, অন্যায়-অবিচার, শোষণ-বঞ্চনার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে শিখিয়েছেন এবং অধিকার আদায়ের সংগ্রাম করতে শিখিয়েছেন। তিনি বাঙালিদের হৃদয়ে সাহস সঞ্চার করেছেন। বর্তমানে দেশের যত উন্নয়ন তার ভিত রচনা করেছেন বঙ্গবন্ধু। জাতির পিতার দেখানো পথে বাংলাদেশ আজ বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়ন-অগ্রগতিতে অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে চলেছে। তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় রাঙ্গামাটি জেলার কাপ্তাই উপজেলাস্থ চন্দ্রঘোনা পেপার মিল এলাকায় শিশু অবস্থায় দেখা মুক্তিযুদ্ধের সময়কার বিভিন্ন স্মৃতিচারণ করেন। তাছাড়া ১৯৭১ সালের ২৫ শে মার্চ কালো রাতে ইতিহাসের যে নারকীয় ও বর্বরোচিত গণহত্যা সংঘটিত হয়েছিল তা যেনো আন্তর্জাতিক ভাবে স্বীকৃতি পায় এবং প্রতিবছর ২৫ মার্চ আন্তর্জাতিক ভাবে সারাবিশ্বেই গনহত্যা দিবস পালিত হয় সে দাবী জানান। তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ সকলের মাঝে ছড়িয়ে দেয়ার জন্য সম্মানিত শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের প্রতি আহবান জানান।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ, প্রক্টর জনাব জুয়েল সিকদার উপস্থিত ছিলেন।
কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রভাষক জনাব ঋষিতা চাকমার সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যানগণের পক্ষ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিএসই বিভাগের চেয়ারম্যান জনাব ধীমান শর্মা, হল সমূহের পক্ষ থেকে প্রভোস্ট জনাব সজীব ত্রিপুরা,কর্মকর্তা এসোসিয়েশন এর সভাপতি জনাব মাহাবুব আরা, কর্মচারী কল্যাণ সমিতির সভাপতি জনাব কামাল হোসেন বক্তব্য রাখেন।
বক্তাগণ তাদের বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশের মানুষকে মর্যাদাশীল জাতি হিসেবে বিশ্বে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবার সুযোগ করে দিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। কোন অপশক্তি বাংলাদেশের এ অগ্রযাত্রা রুখতে পারবে না। শিক্ষার ক্ষেত্রে জাতির পিতা যে আদর্শ রেখে গেছেন তা সঠিকভাবে ধারণ, লালন ও চর্চা করতে হবে। একই সাথে শিক্ষার্থীদের পারস্পরিক সহযোগিতা, সহমর্মিতা, শ্রদ্ধাবোধ ও সম্প্রীতির বন্ধনে উদ্বুদ্ধ হয়ে নিজেকে গড়ে তুলার আহ্বান জানান তারা।
সভাপতির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য বলেন, জাতির পিতা একটি শোষণ মুক্ত ও ধর্ম নিরেপক্ষ রাষ্ট্র গঠন করার লক্ষ্য নিয়ে দেশ পরিচালনা শুরু করেছিলেন কিন্তু ৭৫ এর ১৫ আগষ্ট স্বাধীনতা বিরোধী চক্র বঙ্গবন্ধু সহ তাঁর পরিবারকে নির্মমভাবে হত্যা করে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখল করে বিভিন্ন সময় মুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত ইতিহাসকে বিকৃত করে তা প্রচার করে। তিনি শিক্ষার্থীদের জ্ঞান ও বুদ্ধি চর্চার উন্নয়নে নিজেকে সামিল করার পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা ভিত্তিক শিক্ষা কার্যক্রম জোরদারের আহ্বান জানান।
অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ এবং শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস-২০২৩ উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের হল সমূহের শিক্ষার্থীদের মাঝে ইফতার ও উন্নতমানের খাবার পরিবেশনের আয়োজন করা হয়েছে।
news

01 Jan 1970 - 01 Jan 1970

জাতির পিতার ১০৩ তম জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপিত

বিশ্বের নির্যাতিত-নিপীড়িত গণমানুষের মুক্তির দূত, মহাকালের মহানায়ক, স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশের মহান স্থপতি,  বাঙালি জাতির অবিসংবাদিত নেতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০৩ তম জন্মদিনজাতীয় শিশু দিবস১৭ মার্চ ২০২৩ উপলক্ষে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে যথাযোগ্য মর্যাদায় বর্ণিল আয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে উদযাপিত হয়েছে।

আজ সকাল ৯ঃ০০ ঘটিকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর . সেলিনা আখতার বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সকলকে সাথে নিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। অতঃপর জাতির পিতার ১০৩ তম জন্মদিন উপলক্ষে শিশু চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা,জাতির পিতাকে নিয়ে "HASINA A DAUGHTER'S TALE " প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শনী উদ্বোধন করেন এবং উপস্থিত শিশুদের সাথে নিয়ে কেক কাটেন।

 

এদিকে জাতির পিতার জন্মদিন শিশু দিবস উপলক্ষে "স্মার্ট বাংলাদেশের স্বপ্নে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন, শিশুদের চোখ সমৃদ্ধির স্বপ্নে রঙিন" প্রতিপাদ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো- ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর . কাঞ্চন চাকমার সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে  বিশেষ অতিথি হিসেবে প্রক্টর জনাব জুয়েল সিকদার,বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ উপস্থিত ছিলেন।

ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের প্রভাষক মোসাঃ হাবিবা এর সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার জনাব মোহাম্মদ ইউসুফ,প্রক্টর জনাব জুয়েল সিকদার বক্তব্য রাখেন। 

মাননীয় উপাচার্য তাঁর প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাঙালি জাতির অবিসংবাদিত নেতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। তিনি জাতীয় চারনেতা, মহান মুক্তিযুদ্ধে ত্রিশলক্ষ শহীদ, ’৭৫ এর ১৫ আগস্ট ঘাতক হায়েনাদের হাতে নির্মমভাবে নিহত বঙ্গবন্ধু পরিবারের সদস্যদের বিনম্র চিত্তে গভীর শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন এবং মহান মুক্তিযুদ্ধে নির্যাতিত দুলক্ষ মা বোনের প্রতি বিশেষ সম্মান প্রদর্শন করেন। তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ অবিচ্ছিন্ন সত্ত্বা। সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মহানায়কের জীবনের বিভিন্ন দিকগুলো শিশু-কিশোরদের মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে। কারণ শিশুরাই আগামীদিনের ভবিষ্যৎ; জাতির কর্ণধার। তাদেরকে জাতির পিতার আদর্শে অনুপ্রাণিত করে দেশপ্রেমিক সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়ন এবং স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে বাস্তব যুগোপযোগী গবেষণার দিকে শিক্ষকগণকে আরো বেশি বেশি সম্পৃক্ত হওয়ার তাগিদ দেন তিনি।

 

আলোচনা সভা নানা আয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান, শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ, প্রক্টর সহকারী প্রক্টরবৃন্দ, প্রভোস্ট,সহকারী প্রভোস্ট, শিক্ষকবৃন্দ, অনুষ্ঠান আয়োজন কমিটির সদস্যবৃন্দ, দপ্তর প্রধানবৃন্দ, অফিসার এসোসিয়েশন, কর্মচারি কল্যাণ সমিতি, কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ, শিক্ষার্থীবৃন্দ, শিশুদের অভিভাবকবৃন্দ এবং সুধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

আলোচনা সভা শেষে চিত্রাংকন প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহনকারী শিশুদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করা হয়।

news

16 Mar 2023 - 01 Jan 1970

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলর জনাব মোঃ আবদুল হামিদ এঁর সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার

আজ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলর জনাব মোঃ আবদুল হামিদ এঁর সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার। 

সৌজন্য সাক্ষাৎকালে মহামান্য রাষ্ট্রপতি রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিষয়ে খবরা খবর নেন এবং স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মান ও শিক্ষার গুণগতমান নিশ্চিতকল্পে প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা প্রদান করেন।

এসময় মাননীয় উপাচার্য  বিশ্ববিদ্যালয় ও রাঙ্গামাটিবাসীর পক্ষ থেকে মহামান্য রাষ্ট্রপতিকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন।

news

01 Jan 1970 - 01 Jan 1970

ডিজিটাল প্রযুক্তির উদ্ভাবন জেন্ডার বৈষম্য করবে নিরসন

ডিজিটাল প্রযুক্তির উদ্ভাবন জেন্ডার বৈষম্য করবে নিরসন

"ডিজিটাল প্রযুক্তি উদ্ভাবন: জেন্ডার বৈষম্য করবে নিরসন" প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে রাঙামাটি বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট বিভাগের উদ্যোগে আজ আন্তর্জাতিক নারী দিবস ২০২৩ আলোচনা সভা আয়োজন করা হয়।

 

সকাল ১০:০০ ঘটিকায় প্রশাসনিক ভবনের সামনে থেকে এক ্যালী বের করা হয় ্যালিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করে দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবনের সামনে এসে শেষ য়ে দীপংকর তালুকদার একাডেমিক ভবনের সম্মেলন কক্ষে আন্তর্জাতিক নারী দিবস ২০২৩ উপলক্ষে এক আলোচনা সভা আয়োজন করা হয়  

 

আলোচনা সভা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর . সেলিনা আখতার উপস্থিত ছিলেন অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারী অধ্যাপক গৌরব চাকমা এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাবিপ্রবি প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর . কাঞ্চন চাকমা, প্রক্টর সিএসই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জুয়েল সিকদার এছাড়া সহকারী প্রক্টর ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সূচনা আখতার এবং পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ভারপ্রাপ্ত) ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সপ্তর্ষি চাকমা উপস্থিত ছিলেন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান সহকারী অধ্যাপক নেইংম্রাচিং চৌধুরী ননী  অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহকারী অধ্যাপক  মোহনা বিশ্বাস  

 

অনুষ্ঠানের শুরুতে কেক কাটা হয় এরপরে অনুষ্ঠানে আন্তর্জাতিক নারী দিবস ২০২৩ উপলক্ষ্যে ম্যানেজমেন্ট বিভাগের পক্ষ থেকে রাবিপ্রবি মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর . সেলিনা আখতার মহোদয়কে বিশেষ সম্মানন স্মারক প্রদান করা হয় ম্যানেজমেন্ট বিভাগেরে (চার) জন শিক্ষার্থীকে বিশেষ উপহার প্রদান করা হয়  যারা জীবনের ঘাত-প্রতিঘাটকে পেছনে ফেলে নিজেকে উচ্চ শিক্ষায় নিয়োজিত করতে পেরেছেন 


news

01 Jan 1970 - 01 Jan 1970

রাবিপ্রবিতে শেখ রাসেল এর ৫৯ তম জন্মদিন ও শেখ রাসেল দিবস-২০২২ উদযাপন ও দোয়া কামনা

১৮ অক্টোবর ২০২২ তারিখ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেল এর ৫৯ তম জন্মদিন ও শেখ রাসেল দিবস-২০২২ উপলক্ষে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দীপংকর তালুকদার ভবনের সম্মেলন কক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

 

আলোচনা সভার আগে শেখ রাসেল এর ৫৯ তম জন্মদিন ও শেখ রাসেল দিবস-২০২২ উপলক্ষে শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন এবং দোয়া কামনা করেন রাবিপ্রবি মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার মহোদয়, খাদ্য মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও রাবিপ্রবি রিজেন্ট বোর্ডের সদস্য সাংসদ জনাব দীপংকর তালুকদার এমপি এবং রাবিপ্রবি উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমাসহ অন্যান্যরা।   

 

সভায় রাবিপ্রবি মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার মহোদয়ের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খাদ্য মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও রাবিপ্রবি রিজেন্ট বোর্ডের সদস্য সাংসদ জনাব দীপংকর তালুকদার এমপি এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাবিপ্রবি উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা ।

এছাড়া আলোচনা সভায়  রাবিপ্রবি প্রক্টর জনাব জুয়েল সিকদার, পরিকল্পনা ও উন্নয়ন বিভাগের সহকারি পরিচালক মোঃ আবদুল গফুর, ফরেস্ট্রি এন্ড ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান জনাব সুপ্রিয় চাকমা, ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান জনাব নেইংম্রাচিং চোধুরী ননি, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান জনাব ধীমান শর্মা, ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের চেয়ারম্যান(ইন-চার্জ) জনাব খোকনেশ্বর ত্রিপুরা এবং হিসাব রক্ষক জনাব সালাহউদ্দিন বক্তব্য প্রদান করেন।  সভা সঞ্চালনা করেন রাবিপ্রবি রেজিস্ট্রার( ভারপ্রাপ্ত) জনাব অঞ্জন কুমার চাকমা।

 

সভায় বক্তারা ১৯৭৫ সালে শিশু শেখ রাসেলকে হত্যা ইতিহাসের একটি জগণ্য অপরাধ হিসেবে আখ্যায়িত করেন। বক্তারা এরকম হত্যাকান্ড যেন ভবিষ্যতে বিশ্বে কোথাও না হয় এ কামনা করেন।

 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাংসদ দীপংকর তালুকদার বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে স্ব-পরিবারে যে হত্যাকান্ড হয়েছে  তা পৃথিবীতে নজিরবিহীন। এটা ছিল সমষ্টিগত চেতনার বিরুদ্ধে হত্যাকান্ড। ফুল প্রস্পুতি হওয়ার আগে শেখ রাসেলকে হত্যা করা হয়েছে। শিশু রাসেল বেঁচে থাকলে হয়তো দেশের জন্য অনেক অবদান রাখতো। তিনি আরো বলেন, “ভবিষ্যতে বাংলাদেশ যেন শিশুদের জন্য নিরাপদ হয়, এভাবে শিশু যেন অকালে মারা না যায় এই কামনা করি। আগামী প্রজন্মের শিশুদের জন্য নিরাপদ বাসযোগ্য পৃথিবী যেন রেখে যেতে পারি সবাইকে এই অংগীকার করতে হবে।”      

 

উপাচার্য ড. সেলিনা আখতার বলেন, শিশু রাসেলকে হত্যা একটা জগণ্য অপরাধ ছিল। মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধংস করার জন্য ১৯৭৫ সালের হত্যাকান্ড ঘটানো হয়েছে। স্বাধীন বাংলাদেশ যেন মাথা উচু করে দাড়াতে না পারে এ হত্যাকান্ড তারই অংশ।  

 

উপ-উপাচার্য ড. কাঞ্চন চাকমা বলেন, উপ-উপাচার্য ড. কাঞ্চন চাকমা বলেন, “আমরা শেখ রাসেলকে হারিয়েছি - সাথে হারিয়েছি বড় সম্ভাবনাকে।”

 

আলোচনা সভা শেষে রাবিপ্রবি প্রশাসনিক ভবনের সামনে বৃক্ষ রোপণ করেন রাবিপ্রবি মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. সেলিনা আখতার এবং উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. কাঞ্চন চাকমা।